শাবানার সমাবেশে মানুষের ঢল
jugantor
শাবানার সমাবেশে মানুষের ঢল

  কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি  

১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:২৬:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোর-৬ কেশবপুর আসনে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি সাগরদাঁড়িতে সমাবেশে বক্তব্য দেন শাবানা

চলচ্চিত্র জগতের এক সময়ের কিংবদন্তি নায়িকা শাবানা ও তার স্বামী একেএস ওয়াহিদ সাদিক যশোর-৬ কেশবপুর আসনে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি সাগরদাঁড়ি থেকে গণসংযোগ শুরু করেছেন।

শাবানা ও তার স্বামী একেএস ওয়াহিদ সাদিক গণসংযোগে বলেন, তারা উপ-নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী মনোনয়ন দিলে তারা নির্বাচন করবেন। উপ-নির্বাচনে প্রস্তুতি নিতে তারা গণসংযোগ করছেন।

সোমবার বেলা ১১টায় শাবানা ও তার স্বামী ওয়াহিদ সাদিক নিজ গ্রাম কেশবপুরের বড়েঙ্গা থেকে যাত্রা করেন।

এ সময় মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় অংশ নেন এলাকায় শাবানার সমর্থকরা। তারা সাড়ে ১২টায় কেশবপুরের সাগরদাঁড়ি পৌঁছান।

সেখানে পথসভায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মনির উদ্দিন মোড়লের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন শাবানা (আফরোজা সুলতানা রত্না), ওয়াহিদ সাদিক, সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল হালিম।

এ সময় এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা সুভাস চন্দ্র, পার্থ সারথীসহ দলের নেতাকর্মী ছাড়া শত শত নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

শাবানাকে দেখতে জনতার ঢল নামে। সাগরদাঁড়ি সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার সীমন্তে হওয়ায় শাবানাকে দেখতে তালা থেকেও অনেক নারী-পুরুষ পথসভা স্থানে হাজির হন।

তালা উপজেলার সারসা গ্রাম থেকে আসা মোমেনা খাতুন বলেন, ‘সিনেমায় বহুবার শাবানাকে দেখেছি, আজ আসলাম শাবানাকে সরাসরি দেখতে।’

শাবানা বক্তব্য দেয়ার সময় যখন ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিচ্ছিলেন তখন সমবেত জনতা তার সঙ্গে স্লোগান দেন।

সমাবেশে উপস্থিত সাগরদাঁড়ি গ্রামের শিখা রানী বলেন, ‘শাবানা বা তার স্বামী যে মনোনয়ন পাবেন তিনি তাকে ভোট দেবেন।’

এরপর দুপুর ২টায় ত্রিমোহিনী, চাঁদড়া, সাতবাড়িয়া, বেগমপুরে পৃথক পথসভায় বক্তব্য রাখেন শাবানা দম্পতি। কেশবপুর পৌর শহরে তারা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

ইতিপূর্বে ৫ ফেব্রুয়ারি শাবানা ও ওয়াহিদ সাদিক গণসংযোগে কেশবপুর আসেন। তাদের কঠোর পুলিশি নিরাপত্তা দেয়া হয়।

এক সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয়বার গণসংযোগে আসায় কেশবপুরে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হয়েছে।

শাবানার সমাবেশে মানুষের ঢল

 কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি 
১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যশোর-৬ কেশবপুর আসনে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি সাগরদাঁড়িতে সমাবেশে বক্তব্য দেন শাবানা
যশোর-৬ কেশবপুর আসনে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি সাগরদাঁড়িতে সমাবেশে বক্তব্য দেন শাবানা

চলচ্চিত্র জগতের এক সময়ের কিংবদন্তি নায়িকা শাবানা ও তার স্বামী একেএস ওয়াহিদ সাদিক যশোর-৬ কেশবপুর আসনে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি সাগরদাঁড়ি থেকে গণসংযোগ শুরু করেছেন।

শাবানা ও তার স্বামী একেএস ওয়াহিদ সাদিক গণসংযোগে বলেন, তারা উপ-নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী মনোনয়ন দিলে তারা নির্বাচন করবেন। উপ-নির্বাচনে প্রস্তুতি নিতে তারা গণসংযোগ করছেন।

সোমবার বেলা ১১টায় শাবানা ও তার স্বামী ওয়াহিদ সাদিক নিজ গ্রাম কেশবপুরের বড়েঙ্গা থেকে যাত্রা করেন।

এ সময় মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় অংশ নেন এলাকায় শাবানার সমর্থকরা। তারা সাড়ে ১২টায় কেশবপুরের সাগরদাঁড়ি পৌঁছান।

সেখানে পথসভায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মনির উদ্দিন মোড়লের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন শাবানা (আফরোজা সুলতানা রত্না), ওয়াহিদ সাদিক, সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল হালিম।

এ সময় এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা সুভাস চন্দ্র, পার্থ সারথীসহ দলের নেতাকর্মী ছাড়া শত শত নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

শাবানাকে দেখতে জনতার ঢল নামে। সাগরদাঁড়ি সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার সীমন্তে হওয়ায় শাবানাকে দেখতে তালা থেকেও অনেক নারী-পুরুষ পথসভা স্থানে হাজির হন।

তালা উপজেলার সারসা গ্রাম থেকে আসা মোমেনা খাতুন বলেন, ‘সিনেমায় বহুবার শাবানাকে দেখেছি, আজ  আসলাম শাবানাকে সরাসরি দেখতে।’

শাবানা বক্তব্য দেয়ার সময় যখন ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিচ্ছিলেন তখন সমবেত জনতা তার সঙ্গে স্লোগান দেন।

সমাবেশে উপস্থিত সাগরদাঁড়ি গ্রামের শিখা রানী বলেন, ‘শাবানা বা তার স্বামী যে মনোনয়ন পাবেন তিনি তাকে ভোট দেবেন।’

এরপর দুপুর ২টায় ত্রিমোহিনী, চাঁদড়া, সাতবাড়িয়া, বেগমপুরে পৃথক পথসভায় বক্তব্য রাখেন শাবানা দম্পতি। কেশবপুর পৌর শহরে তারা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।  

ইতিপূর্বে ৫ ফেব্রুয়ারি শাবানা ও ওয়াহিদ সাদিক গণসংযোগে কেশবপুর আসেন। তাদের কঠোর পুলিশি নিরাপত্তা দেয়া হয়। 

এক সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয়বার গণসংযোগে আসায় কেশবপুরে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন