কিশোরগঞ্জে মৃত্যুর ১০ মাস পর কবর থেকে ব্যবসায়ীর লাশ উত্তোলন

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

লাশ উত্তোলন
লাশ উত্তোলন। ছবি: যুগান্তর

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মৃত্যুর ১০ মাস পর নূরুল হক নামে এক পাথর ব্যবসায়ীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার আদালতের আদেশে ভৈরব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রি খিসা ও সহকারী পুলিশ সুপার রেজোয়ান আহমেদ দীপুর উপস্থিতিতে ভৈরবের নবীপুর গ্রামের কবরস্থান থেকে তার লাশ উত্তোলন করা হয়।

পরে পুলিশ লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জে পাঠায়। নিহত নূরুল হকের বাবার নাম মো. গোলাপ মিয়া এবং তার বাড়ি ভৈরব উপজেলার নবীপুর গ্রামে।

গত বছর ২৮ মার্চ কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাউন্ডারির ভেতরে প্রতিপক্ষরা তাকে মারধর করে গুরুতর আহত করে। এর ১০ দিন পর ৭ এপ্রিল আহত নূরুল হক বাজিতপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান। পরে তাকে পরিবারের সদস্যরা ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন করেন।

মৃত্যুর ৮ মাস পর নিহত নূরুল হকের মা রেহেনা বেগম বাদী হয়ে গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর কুলিয়ারচর থানায় ৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

আসামিরা হলেন- কুলিয়ার চরের মোস্তফা, ফারুক মিয়া, আল আমিন, দুলাল মিয়া, নিকলির সিংপুরের কিবরিয়া, ভৈরব শহরের জগনাথপুরের তাছলিমা বেগম, তুলাকান্দি গ্রামের গুলজাহান বেগম।

মামলার পর কুলিয়ারচর থানার এসআই ও তদন্তকারী কর্মকর্তা তাজমুন করিম ২০ দিন আগে কিশোরগঞ্জের আদালতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য আবেদন করেন।

৩০ জানুয়ারি শুনানি শেষে আদালত লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করতে নির্দেশ দেন। আদালতের আদেশে আজ লাশটি কবর থেকে উত্তোলন করা হয়।

মামলার বাদী নিহতের মা রেহেনা বেগম অভিযোগে বলেছেন, তার ছেলে প্রতিপক্ষ মোস্তাফাসহ কয়েকজনের কাছে ৩৫ লাখ টাকা পেত। পাওনা টাকা না দেয়ায় নূরুল হক আদালতে তাদের বিরুদ্ধে চেকের মামলাও করে। এ কারণে দেনাদাররা মিলে তার ছেলেকে পিটিয়ে মেরে ফেলে। ঘটনাটি কয়েকমাস পর তার মা বিষয়টি জানতে পেরে এই মামলা করেছেন।

এসআই তাজমুন করিম জানান, ছেলে হত্যার ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে কুলিয়ারচর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। তাই মামলাটি তদন্তের স্বার্থে লাশের ময়নাতদন্ত করা জরুরি। এ কারণে আমি আদালতে আবেদন করলে আদালতের আদেশ মোতাবেক আজ কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৪৮ ১৫
বিশ্ব ৭,১০,৯৮৭১,৫০,৭৮৮৩৩,৫৫৭
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×