মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ছয়দিনে ১৯ লাশ উদ্ধার
jugantor
মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ছয়দিনে ১৯ লাশ উদ্ধার

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৪৪:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবিতে উদ্ধার

বঙ্গোপসাগরে মালেয়শিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় সেন্টমার্টিন সৈকতে ভেসে আসা আরও এক লাশ উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।

রোববার বিকাল ৪টার দিকে সেন্টমার্টিনের পশ্চিম সৈকত (কোনারপাড়া) এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এই নিয়ে ট্রলারডুবির ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ জনে। এর মধ্যে ১৪ নারী, ২ পুরুষ ও ৩ শিশু।

বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পূর্ব জোনের স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার সাইফুল ইসলাম জানান, রোববার বিকালে সেন্টমার্টিনের কোনারপাড়া নামক সি-বিচ এলাকা থেকে একজন পুরুষের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশে পচন ধরেছে বলে জানান তিনি।

সাইফুল ইসলাম আরও জানান, এর আগে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ১৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। এ নিয়ে মোট ৬ দিনে ১৯ জনের লাশ উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। নিখোঁজদের সন্ধানে কোস্টগার্ড উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ ফেব্রুয়ারি অবৈধভাবে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় ১৩৮ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার সেন্টমার্টিনের দক্ষিণে পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে পানিতে ডুবে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ১৫ জন রোহিঙ্গার মৃত্যু হয়। একই সময় ৭৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছিল।

ট্রলারডুবির মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক লিয়াকত আলী জানান, এ ঘটনায় ১৯ জন দালালকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করে কোস্টগার্ড। ওই মামলায় এ পর্যন্ত ৯ জনকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ। উদ্ধার ১৯ মৃতের মধ্যে ১১ জনের পরিচয় শনাক্ত করেছে স্বজনরা।

মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ছয়দিনে ১৯ লাশ উদ্ধার

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবিতে উদ্ধার
সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবিতে উদ্ধার। ফাইল ছবি

বঙ্গোপসাগরে মালেয়শিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় সেন্টমার্টিন সৈকতে ভেসে আসা আরও এক লাশ উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।

রোববার বিকাল ৪টার দিকে সেন্টমার্টিনের পশ্চিম সৈকত (কোনারপাড়া) এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এই নিয়ে ট্রলারডুবির ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ জনে। এর মধ্যে ১৪ নারী, ২ পুরুষ ও ৩ শিশু।

বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পূর্ব জোনের স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার সাইফুল ইসলাম জানান, রোববার বিকালে সেন্টমার্টিনের কোনারপাড়া নামক সি-বিচ এলাকা থেকে একজন পুরুষের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশে পচন ধরেছে বলে জানান তিনি।

সাইফুল ইসলাম আরও জানান, এর আগে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ১৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। এ নিয়ে মোট ৬ দিনে ১৯ জনের লাশ উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। নিখোঁজদের সন্ধানে কোস্টগার্ড উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ ফেব্রুয়ারি অবৈধভাবে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় ১৩৮ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার সেন্টমার্টিনের দক্ষিণে পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে পানিতে ডুবে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ১৫ জন রোহিঙ্গার মৃত্যু হয়। একই সময় ৭৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছিল। 

ট্রলারডুবির মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক লিয়াকত আলী জানান, এ ঘটনায় ১৯ জন দালালকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করে কোস্টগার্ড। ওই মামলায় এ পর্যন্ত ৯ জনকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ। উদ্ধার ১৯ মৃতের মধ্যে ১১ জনের পরিচয় শনাক্ত করেছে স্বজনরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রোহিঙ্গা বর্বরতা

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন