দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা!
jugantor
দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা!

  কেশবপুর (যশোর)প্রতিনিধি  

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:০৩:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা

যশোরের কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের নিচে হাতুড়ি বাহিনীর বাহিনীর দখলে থাকা একটি কক্ষ থেকে থানা পুলিশ দেশীয় অস্ত্র ও ফেনসিডিলের বোতল উদ্ধার করেছে।

এছাড়া হাইব্রিড ও হাতুড়ি বাহিনীর দখলে থাকা বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখলমুক্ত করে দুধ দিয়ে ধুয়ে পরিচ্ছন্ন করে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা অফিসে উঠছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এসএম রুহুল আমীন দীর্ঘ ৬ বছর পর দলীয় কার্যালয়ে আসেন। তার সঙ্গে দলের সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা ও পৌর মেয়রসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

তিনি জানান, দলীয় কার্যালয়ের নিচে কৃষক লীগের অফিসটি ২০১৪ সাল থেকে হাতুড়ি বাহিনী দখলে নিয়ে মাছের ঘের দখল, মাদক ব্যবসা ও সেবন, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, বাজার লুটসহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করত। দীর্ঘ ৬ বছর তাদের অত্যাচারে আতঙ্কে থাকত কেশবপুরবাসী।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারকে যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী করায় হাতুড়ি ও গামছা বাহিনীর সদস্যসহ তাদের গডফাদাররা গা ঢাকা দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তাদের দখলে থাকা বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখলমুক্ত করে গরুর দুধ দিয়ে ধুয়ে তারপর দলের ত্যাগী নেতা কর্মীরা অফিসে বসছেন।

উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাবেয়া ইকবালের নেতৃত্বে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ধোয়া-মোছার সময় থানা পুলিশের উপস্থিতিতে হাতুড়ি বাহিনীর দখলে থাকা কক্ষটি খোলা হয়। এ সময় পুলিশ ওই কক্ষ থেকে ওই বাহিনীর ব্যবহৃত ২টি ধারালো বেকী, ৪টি তলোয়ার, ১টি কিরিচ ও ফেনসিডিলের ৭টি বোতল উদ্ধার করে। এরপর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা গরুর দুধ দিয়ে কক্ষটি ধুয়ে মুছে ফেলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত ৬ বছরে আওয়ামী লীগ অফিসে ঢুকতে পারেনি। আজ (মঙ্গলবার) সকালে অফিসে এসে দেখি থানা পুলিশ হাতুড়ি দখলে থাকা কক্ষটির তালা খুলে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রসহ ফেনসিডিলের বোতল উদ্ধার করে।

তিনি আরও বলেন, হাতুড়ি বাহিনী প্রধান খন্দকার আবদুল আজিজ, আবু সাঈদ লাভলু, এসএম মাহাবুর রহমান, আলাল দিলু, ইমরান হোসেন, শেখ জামাল উদ্দীন, তানজিল আহমেদদের গডফাদার বিশ্বাস শহীদুজ্জামান শহীদের নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখল করে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাত।

সফলাকাচি ও গড়ভাঙ্গা এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা আজহারুল ও আলবাহার বলেন, তারা দীর্ঘদিন ধরে অফিসে আসতে পারেননি। সোমবার সন্ধ্যায় তারা অফিসে গিয়ে দুধ দিয়ে পরিচ্ছন্ন করে অভিশাপ মুক্ত করেন।

কেশবপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সাঈদ বলেন, দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় থানায় জিডি করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা!

 কেশবপুর (যশোর)প্রতিনিধি 
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা
দুধ দিয়ে ধুয়ে অফিসে উঠছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা

যশোরের কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের নিচে হাতুড়ি বাহিনীর বাহিনীর দখলে থাকা একটি কক্ষ থেকে থানা পুলিশ দেশীয় অস্ত্র ও ফেনসিডিলের বোতল উদ্ধার করেছে।

এছাড়া হাইব্রিড ও হাতুড়ি বাহিনীর দখলে থাকা বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখলমুক্ত করে দুধ দিয়ে ধুয়ে পরিচ্ছন্ন করে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা অফিসে উঠছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এসএম রুহুল আমীন দীর্ঘ ৬ বছর পর দলীয় কার্যালয়ে আসেন। তার সঙ্গে দলের সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা ও পৌর মেয়রসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

তিনি জানান, দলীয় কার্যালয়ের নিচে কৃষক লীগের অফিসটি ২০১৪ সাল থেকে হাতুড়ি বাহিনী দখলে নিয়ে মাছের ঘের দখল, মাদক ব্যবসা ও সেবন, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, বাজার লুটসহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করত। দীর্ঘ ৬ বছর তাদের অত্যাচারে আতঙ্কে থাকত কেশবপুরবাসী।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারকে যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী করায় হাতুড়ি ও গামছা বাহিনীর সদস্যসহ তাদের গডফাদাররা গা ঢাকা দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তাদের দখলে থাকা বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখলমুক্ত করে গরুর দুধ দিয়ে ধুয়ে তারপর দলের ত্যাগী নেতা কর্মীরা অফিসে বসছেন।

উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাবেয়া ইকবালের নেতৃত্বে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ধোয়া-মোছার সময় থানা পুলিশের উপস্থিতিতে হাতুড়ি বাহিনীর দখলে থাকা কক্ষটি খোলা হয়। এ সময় পুলিশ ওই কক্ষ থেকে ওই বাহিনীর ব্যবহৃত ২টি ধারালো বেকী, ৪টি তলোয়ার, ১টি কিরিচ ও ফেনসিডিলের ৭টি বোতল উদ্ধার করে। এরপর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা গরুর দুধ দিয়ে কক্ষটি ধুয়ে মুছে ফেলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত ৬ বছরে আওয়ামী লীগ অফিসে ঢুকতে পারেনি। আজ (মঙ্গলবার) সকালে অফিসে এসে দেখি থানা পুলিশ হাতুড়ি দখলে থাকা কক্ষটির তালা খুলে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রসহ ফেনসিডিলের বোতল উদ্ধার করে।

তিনি আরও বলেন, হাতুড়ি বাহিনী প্রধান খন্দকার আবদুল আজিজ, আবু সাঈদ লাভলু, এসএম মাহাবুর রহমান, আলাল দিলু, ইমরান হোসেন, শেখ জামাল উদ্দীন, তানজিল আহমেদদের গডফাদার বিশ্বাস শহীদুজ্জামান শহীদের নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ অফিস দখল করে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাত।

সফলাকাচি ও গড়ভাঙ্গা এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা আজহারুল ও  আলবাহার বলেন, তারা দীর্ঘদিন ধরে অফিসে আসতে পারেননি। সোমবার সন্ধ্যায় তারা অফিসে গিয়ে দুধ দিয়ে পরিচ্ছন্ন করে অভিশাপ মুক্ত করেন।

কেশবপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সাঈদ বলেন, দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় থানায় জিডি করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন