হেরোইন গাঁজাসহ ধামরাই আ’লীগ সভাপতি গ্রেফতার
jugantor
হেরোইন গাঁজাসহ ধামরাই আ’লীগ সভাপতি গ্রেফতার

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৩৪:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে ৫৯ পুড়িয়া হিরোইন ও ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, মাদক ব্যবসায়ী ইউপি সদস্য তোতা মিয়া ও তার সহযোগী নাজিমুদ্দিন আহাম্মেদ গ্রেফতার হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে ধামরাই উপজেলার চৌহাট বাজারের মাদক ব্যবসায়ী নাজিমুদ্দিন আহাম্মেদের বাড়িতে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসী জানান,চৌহাট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও চৌহাট মধ্যপাড়ার আব্দুল বাছেদ ওরফে ভেটকো মিয়ার ছেলে তোতা মিয়া ও চৌহাট বাজারের উত্তরপাশের বাসিন্দা হাজি খলিলুর রহমানের ছেলে

নাজিম উদ্দিন আহাম্মেদ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দীর্ঘ দিন ধরে মাদকের ব্যবসা করে আসছিলেন।
মাদকের কারণে এলাকার দিনমজুর থেকে শুরু করে বিভিন্ন পেশার মানুষ নেশাদ্রব্যের করালগ্রাসের শিকার হয়ে বিপথগামী হয়ে পড়ছেন।

শুধু তাই নয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও এ ভয়াবহ নেশার থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না। পুরো এলাকা যেন পরিণত হয়েছে নেশার স্বর্গরাজ্যে। এদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। ফলে গোপনে এলাকাবাসী মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে এ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

হেরোইন গাঁজাসহ ধামরাই আ’লীগ সভাপতি গ্রেফতার

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে ৫৯ পুড়িয়া হিরোইন ও ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, মাদক ব্যবসায়ী ইউপি সদস্য তোতা মিয়া ও তার সহযোগী নাজিমুদ্দিন আহাম্মেদ  গ্রেফতার হয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার বিকালে ধামরাই উপজেলার চৌহাট বাজারের মাদক ব্যবসায়ী নাজিমুদ্দিন আহাম্মেদের বাড়িতে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসী জানান,চৌহাট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও চৌহাট মধ্যপাড়ার আব্দুল বাছেদ ওরফে ভেটকো মিয়ার ছেলে তোতা মিয়া ও চৌহাট বাজারের উত্তরপাশের বাসিন্দা হাজি খলিলুর রহমানের ছেলে

নাজিম উদ্দিন আহাম্মেদ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দীর্ঘ দিন ধরে মাদকের ব্যবসা করে আসছিলেন।
মাদকের কারণে এলাকার দিনমজুর থেকে শুরু করে বিভিন্ন পেশার মানুষ নেশাদ্রব্যের করালগ্রাসের শিকার হয়ে বিপথগামী হয়ে পড়ছেন। 

শুধু তাই নয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও এ ভয়াবহ নেশার থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না। পুরো এলাকা যেন পরিণত হয়েছে নেশার স্বর্গরাজ্যে। এদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। ফলে গোপনে এলাকাবাসী মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে এ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন