সেনবাগে স্বামী হত্যায় ব্যর্থ স্ত্রী পালাল ছেলে নিয়ে

  সেনবাগ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:০১ | অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালী

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় স্বামী এনামুল হককে হত্যাচেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে রাতের অন্ধকারে ছেলেকে নিয়ে পালিয়ে গেছে স্ত্রী বিবি কুলসুম পরানী।

রোববার রাতে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার বীজবাগ ইউপির কাজীরখিল গ্রামের আলাবক্স মিজি বাড়িতে নির্মম এ ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনায় আহতের পিতা আবদুল হক বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় মামলা করেছেন। মামলায় আহতের স্ত্রী বিবি কুলসুম পরানী ও ছেলে এমদাদুল হককে আসামি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, ১৯ বছর পূর্বে উপজেলার বীজবাগ ইউপির কাজীরখিল গ্রামের আলাবক্স মিজি বাড়ির আবদুল হকের ছেলে আবুধাবি প্রবাসী এনামুল হকের সঙ্গে বিয়ে হয় মধ্য বীজবাগ গ্রামের বজলের রহমান হাজী বাড়ির মৃত আবদুল হালিমের মেয়ে বিবি কুলসুম পরানীর। তাদের দুই ছেলে রয়েছে।

বিয়ের পর এনামুল হক বিদেশ চলে যায়। তার স্ত্রী পরানী নানা বিষয়ে তার শ্বশুরের পরিবারের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পৃথক হয়ে যায়। পরে স্বামীর বাড়ির কাউকে কোনো পাত্তা না দিয়ে নিজের মতো করে চলতে শুরু করে সে। গত ২০১৫ সালে এনামুল হকের প্রবাস থেকে বাড়ি এসে কিছুদিন ব্যবসা করে। এ সময় এনামুল হক স্ত্রীর চালচলন পছন্দ না হওয়ায় তাদের মধ্যে কলহ শুরু হয়। নিরুপায় হয়ে ঢাকাতে একটা চাকরি নেন এনামুল।

ঘটনার কয়েক দিন আগে বাড়ি আসেন এনামুল। ঘটনার রাতেও স্বামী-স্ত্রী পারিবারিক বিষয়ে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে স্ত্রী পরানী উত্তেজিত হয়ে ওঠে। সঙ্গে যোগ দেয় বড় ছেলে স্থানীয় বীজবাগ এন কে উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র এমদাদুল হক।

স্ত্রী পরানী ও ছেলে এমদাদুল হক দু'জনে মিলে ঘরের দরজা বন্ধ করে এনামুলকে এলোপাথাড়ি কিল, ঘুষি, লাথি মারতে থাকে। পরে মা ও ছেলে মিলে ঘরে থাকা দেশীয় ধারালো টালি দিয়ে এমদাদুল হকের মাথায় কোপ মারে।

এ সময় এনামুলের চিৎকারে আহতের মা ও বাবাসহ বাড়ির লোকজন ছুটে আসেন। তারা রক্তাক্ত অবস্থায় এনামুলকে উদ্ধার করে প্রথমে সেবারহাট, সেখান থেকে সেনবাগ সরকারি হাসপাতাল, নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল, পরে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এক ফাঁকে ছেলে এমদাদুল হককে নিয়ে পালিয়ে যায় বিবি কুলসুম পরানী।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সেনবাগ থানার এসআই জসিম উদ্দিন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১২৫
বিশ্ব ৮,৩৭,০২১ ১,৭৪,৫২৩ ৪১,২৪৫
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×