পিরোজপুরে বাবার বাড়ি এসে গৃহবধূর আত্মহত্যা
jugantor
পিরোজপুরে বাবার বাড়ি এসে গৃহবধূর আত্মহত্যা

  মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি  

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:৩৪:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

আত্মহত্যা
আত্মহত্যা। প্রতীকী ছবি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বাবার বাড়ি বড়াতে এসে হাজেরা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার উপজেলার কালিকাবাড়ি গ্রাম বাবার বাড়ি থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর জেলা মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। 

নিহত হাজেরা বেগম উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি গ্রামের মো. হেলাল হাওলাদারের স্ত্রী। 

হাজেরা বেগমের বাবা নবী হোসেন বলেন, আমার মেয়ে হাজেরার সঙ্গে একই গ্রামের নূর মোহাম্মদ হাওলাদারের ছেলে হেলালের কয়েক বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের দেড় বছর বয়সের একটি মেয়ে রয়েছে। এক বছর যাবৎ হাজেরা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। 

কয়েকদিন আগে হাজেরা স্বামীসহ আমার বাড়িতে বেড়াতে আসে। সোমবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে সবার অগোচরে হাজেরা আত্মহত্যার উদ্দেশে ঘরে রক্ষিত চালের পোকা দমনের ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। 

এ সময়ে অসুস্থ হাজেরাকে সোমবার গভীর রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে বরিশাল নেয়ার পথে হাজেরার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আ. হক জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পিরোজপুরে বাবার বাড়ি এসে গৃহবধূর আত্মহত্যা

 মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি 
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আত্মহত্যা
আত্মহত্যা। প্রতীকী ছবি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বাবার বাড়ি বড়াতে এসে হাজেরা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার উপজেলার কালিকাবাড়ি গ্রাম বাবার বাড়ি থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর জেলা মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

নিহত হাজেরা বেগম উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি গ্রামের মো. হেলাল হাওলাদারের স্ত্রী।

হাজেরা বেগমের বাবা নবী হোসেন বলেন, আমার মেয়ে হাজেরার সঙ্গে একই গ্রামের নূর মোহাম্মদ হাওলাদারের ছেলে হেলালের কয়েক বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের দেড় বছর বয়সের একটি মেয়ে রয়েছে। এক বছর যাবৎ হাজেরা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল।

কয়েকদিন আগে হাজেরা স্বামীসহ আমার বাড়িতে বেড়াতে আসে। সোমবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে সবার অগোচরে হাজেরা আত্মহত্যার উদ্দেশে ঘরে রক্ষিত চালের পোকা দমনের ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

এ সময়ে অসুস্থ হাজেরাকে সোমবার গভীর রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে বরিশাল নেয়ার পথে হাজেরার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আ. হক জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন