পেঁয়াজের কেজি ২৫ টাকা!

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ মার্চ ২০২০, ১১:৩৭:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

বিদেশি পেঁয়াজের ভিড়ে ঝাঁজ কমলেও দাম কমছে না দেশব্যাপী। দেশি পেঁয়াজের উৎপাদন মৌসুমে ৮০ টাকার নিচে পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে না। একটু ভালো মানের পেঁয়াজ কিনতে গেলে দাম দিতে হচ্ছে কেজিতে ১০০ টাকা।

এমতাবস্থায় ক্রেতার ক্ষোভ যখন চরমে, তখন উল্টো চিত্র দেখা গেছে নাটোরে। জেলার নলডাঙ্গা বাজারে হঠাৎ করে কমে গেছে পেঁয়াজের দাম। এক সপ্তাহ আগে ৮০-৯০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ এখন ২৫-৩০ টাকায় বিকছে।

ভারত পেঁয়াজ রফতানি ঘোষণা দেয়ায় দামের হঠাৎ এমন পতন বলে মনে করছেন চাষি ও ব্যবসায়ীরা। দাম কমায় ভোক্তাদের মধ্যে স্বস্তি ফিরলেও দরপতনে হতাশ পেঁয়াজ চাষিরা।

শনিবার নলডাঙ্গা হাটে প্রতি কেজি পেঁয়াজ পাইকারিতে বিক্রি হয়েছে ৩০-৩৫ টাকায়। তবে শহরের বাজারগুলোতে খুচরা বিক্রেতারা প্রতি কেজি ৬০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন।

আর পেঁয়াজ পাইকারি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকা আর খুচরা ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। গত মঙ্গলবার হাটে প্রতি কেজি পেঁয়াজ খুচরা বিক্রি হয় ৭০-৮০ টাকা দরে।

এ বিষয়ে পেঁয়াজ বিক্রেতা রমজান আলী বলেন, পেঁয়াজের দাম হঠাৎ পড়ে যাবে বুঝতে পারিনি। এখন প্রতি কেজিতে ১৫-২০ টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে।

জইনউদ্দিন নামে এক পেঁয়াজ চাষি বলেন, কয়েক বছর পেঁয়াজে ক্রমাগত লোকসান বহন করতে হয়েছে। গত বছর ভরা মৌসুমে ৫ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলাম। এবার ভেবেছিলাম সেই ক্ষতিটা পুষিয়ে নিতে পারব। কিন্তু বড় দরপতনে আর সেটি সম্ভব হবে না।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত