গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন!
jugantor
গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন!

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

০১ মার্চ ২০২০, ২১:৩২:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন

লাশবাহী গাড়িটি এলাকায় পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে শোকের ছায়া নেমে আসে। শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে সারিবদ্ধভাবে লাশ রাখা হয়। স্থানীয় জনতা ও স্বজনদের কান্না যেন থামছেই না। একের পর এক স্বজনরা জ্ঞান হারান।

জানাজার নামাজেও ঢলে পড়েন সন্তান হারানো বাবা আর ভাই হারানোর কষ্টে ভাই। এই শোকাহত ঘটনায় সান্ত্বনার বাণী যেন ‘নিশ্চুপ’, চারদিক স্থবির।

এমন দৃশ্যই দেখা গেল ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয় মাঠে।

নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার কাকউরগড়া ইউনিয়নের শান্তিপুরে শনিবার মর্মান্তিক একই এলাকার ৪ জন পরীক্ষার্থী নিহত হন।

শালীহর হাজী আমির উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. আবু সাঈদ জানান, নিহতরা হল গৌরীপুর উপজেলার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল ইসলাম হৃদয়। সে শালীহর গ্রামের রমজান আলী খানের পুত্র। গত বছর জেএসসির শিক্ষার্থী মো. আশরাফুল আলম। সে শালীহর গ্রামের আব্দুল হকের পুত্র। মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ইয়াসিন মিয়া। সে মৃত আবদুল মজিদের পুত্র। অপরজন হল তারাকান্দা উপজেলার বিসকা গ্রামের ছমির উদ্দিনের পুত্র সাহাবুল ইসলাম। সে এবার শালীহর এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেয়।

নিহতের জানাজার নামাজ বেলা ১১টায় উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। নিহতদের পরিবারকে সান্ত্বনা জানাতে ছুটে আসেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান, পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, ইউএনও সেঁজুতি ধর, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান সোহেল রানা, সালমা আক্তার রুবী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী, মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ।

নিহতের সংবাদে ঘটনাস্থলে ছুটে যান গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন। তিনি জানান, এ ইউনিয়নে একসঙ্গে এত লাশের জানাজা এর আগে কখনও হয়নি। শোকাহত পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তিনিও বারবার মূর্ছা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী পিকআপ ভ্যানের যাত্রী দাখিল পরীক্ষার্থী হারুন অর রশিদ জানান, পিকআপ ভ্যানটির সঙ্গে প্রথমে দ্রুতগামী লরির সংঘর্ষ হয়। তাতে পিকআপ ভ্যানের কিছু অংশ ভেঙে যায়। এ সময় ভ্যানের যাত্রী লাফিয়ে নামার পর দ্রুতগামী ট্রাক শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়। ঘটনাস্থলে দুই শিক্ষার্থীর জীবন পিষে দেয় ওই ঘাতক ট্রাক।

দাখিল পরীক্ষার্থী আহত রুবেল মিয়া জানায়, সদ্য সমাপ্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শেষে শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়, শালীহর-এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা, ভোকেশনালের পরীক্ষার্থীসহ আশপাশের ৪৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে শনিবার পিকনিকে নেত্রকোনার দুর্গাপুরে যায়। দুটো পিকআপে সবাই ছিল। দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপে কতজন ছিল তা জানা নেই। রাত ৮টা ৪০ মিনিটের দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দিকে ইয়াছিনের লাশ দেখেই জ্ঞান হারান তার মা রেহেনা খাতুন। স্বজনরা পানি ঢেলে জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করছেন। তারপরও সন্তান হারানোর কষ্ট কোনোভাবেই ভুলতে পারছেন না রেহেনা খাতুন। জ্ঞান ফিরলে বারবার বকে যাচ্ছেন- ইয়াছিন, আমার ইয়াছিন; তোমরা আমার ইয়াছিনকে বুকে এনে দাও।

অপরদিকে রাকিবুল ইসলাম হৃদয়ের বাড়িতে গিয়ে দেখা আরও হৃদয়বিদারক দৃশ্য। মা সাফিয়া খাতুন, সন্তানের কাপড় বুকে নিয়ে বারবার হৃদয়কে খুঁজে যাচ্ছেন। পাশের মূর্ছা যাচ্ছেন তার স্বজনরা।

গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন!

 গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
০১ মার্চ ২০২০, ০৯:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন
গৌরীপুরে একসঙ্গে চার শিক্ষার্থীর জানাজা সম্পন্ন

লাশবাহী গাড়িটি এলাকায় পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে শোকের ছায়া নেমে আসে। শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে সারিবদ্ধভাবে লাশ রাখা হয়। স্থানীয় জনতা ও স্বজনদের কান্না যেন থামছেই না। একের পর এক স্বজনরা জ্ঞান হারান।

জানাজার নামাজেও ঢলে পড়েন সন্তান হারানো বাবা আর ভাই হারানোর কষ্টে ভাই। এই শোকাহত ঘটনায় সান্ত্বনার বাণী যেন ‘নিশ্চুপ’, চারদিক স্থবির।

এমন দৃশ্যই দেখা গেল ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয় মাঠে।

নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার কাকউরগড়া ইউনিয়নের শান্তিপুরে শনিবার মর্মান্তিক একই এলাকার ৪ জন পরীক্ষার্থী নিহত হন।

শালীহর হাজী আমির উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. আবু সাঈদ জানান, নিহতরা হল গৌরীপুর উপজেলার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল ইসলাম হৃদয়। সে শালীহর গ্রামের রমজান আলী খানের পুত্র। গত বছর জেএসসির শিক্ষার্থী মো. আশরাফুল আলম। সে শালীহর গ্রামের আব্দুল হকের পুত্র। মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ইয়াসিন মিয়া। সে মৃত আবদুল মজিদের পুত্র। অপরজন হল তারাকান্দা উপজেলার বিসকা গ্রামের ছমির উদ্দিনের পুত্র সাহাবুল ইসলাম। সে এবার শালীহর এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেয়।

নিহতের জানাজার নামাজ বেলা ১১টায় উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। নিহতদের পরিবারকে সান্ত্বনা জানাতে ছুটে আসেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান, পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, ইউএনও সেঁজুতি ধর, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান সোহেল রানা, সালমা আক্তার রুবী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী, মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ।

নিহতের সংবাদে ঘটনাস্থলে ছুটে যান গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন। তিনি জানান, এ ইউনিয়নে একসঙ্গে এত লাশের জানাজা এর আগে কখনও হয়নি। শোকাহত পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তিনিও বারবার মূর্ছা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী পিকআপ ভ্যানের যাত্রী দাখিল পরীক্ষার্থী হারুন অর রশিদ জানান, পিকআপ ভ্যানটির সঙ্গে প্রথমে দ্রুতগামী লরির সংঘর্ষ হয়। তাতে পিকআপ ভ্যানের কিছু অংশ ভেঙে যায়। এ সময় ভ্যানের যাত্রী লাফিয়ে নামার পর দ্রুতগামী ট্রাক শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়। ঘটনাস্থলে দুই শিক্ষার্থীর জীবন পিষে দেয় ওই ঘাতক ট্রাক।

দাখিল পরীক্ষার্থী আহত রুবেল মিয়া জানায়, সদ্য সমাপ্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শেষে শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়, শালীহর-এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা, ভোকেশনালের পরীক্ষার্থীসহ আশপাশের ৪৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে শনিবার পিকনিকে নেত্রকোনার দুর্গাপুরে যায়। দুটো পিকআপে সবাই ছিল। দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপে কতজন ছিল তা জানা নেই। রাত ৮টা ৪০ মিনিটের দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দিকে ইয়াছিনের লাশ দেখেই জ্ঞান হারান তার মা রেহেনা খাতুন। স্বজনরা পানি ঢেলে জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করছেন। তারপরও সন্তান হারানোর কষ্ট কোনোভাবেই ভুলতে পারছেন না রেহেনা খাতুন। জ্ঞান ফিরলে বারবার বকে যাচ্ছেন- ইয়াছিন, আমার ইয়াছিন; তোমরা আমার ইয়াছিনকে বুকে এনে দাও।

অপরদিকে রাকিবুল ইসলাম হৃদয়ের বাড়িতে গিয়ে দেখা আরও হৃদয়বিদারক দৃশ্য। মা সাফিয়া খাতুন, সন্তানের কাপড় বুকে নিয়ে বারবার হৃদয়কে খুঁজে যাচ্ছেন। পাশের মূর্ছা যাচ্ছেন তার স্বজনরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন