‘আমরা ভালো হলে মুসলমানদের ওপর জুলুম থাকবে না’
jugantor
‘আমরা ভালো হলে মুসলমানদের ওপর জুলুম থাকবে না’

  কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি  

০২ মার্চ ২০২০, ১৮:৪৬:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা আহম্মদ শফী

হেফাজতেইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেন, সারা বিশ্বের মুসলমানের ওপর নির্যাতন ও নিপীড়ন চলছে। আমরা যদি ভালো হই তবে এ জুলুম থাকবে না।

তিনি বলেন, সৃষ্টিকর্তার নিকট দোয়া করি বিশ্বের সব মুসলমানের ওপর শান্তি বর্ষিত হোক।

সোমবার দুপুরে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেফাজতেইসলামের আমীর এ সব কথা বলেন।

মুসল্লিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কাফেরদের যারা ক্ষমা করবেন তারাও কাফের। বলেন কাদিয়ানীরা কাফের তাদের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। বাংলাদেশে তারা থাকবে কিন্তু অন্যান্য ধর্মের মানুষের মতো। তারা মারা গেলে মুসলমানদের সঙ্গে কবরে দাফন করা যাবে না বলেও মন্তব্য করেন আহাম্মদ শফী।

হেফাজতেইসলামের নেতার কুড়িগ্রামে এই প্রথম আগমনে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আলেম ওলামাসহ লক্ষাধিক মুসল্লি সম্মেলনে অংশ নেন।

সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত মহাসম্মেলনে আবদুল হক হক্কানী সাহেবের সভাপতিত্বে আল্লামা নুরুল ইসলাম ওলিপুরী, আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী, মাওলানা কাজী ফজলুল করিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার দাবি জানান।

এর আগে আহম্মদ শফি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রাম সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অবতরণ করেন এবং সমাবেশ শেষে বিকাল ৪টার দিকে চলে যান।

‘আমরা ভালো হলে মুসলমানদের ওপর জুলুম থাকবে না’

 কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি 
০২ মার্চ ২০২০, ০৬:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা আহম্মদ শফী
কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা আহম্মদ শফী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেন, সারা বিশ্বের মুসলমানের ওপর নির্যাতন ও নিপীড়ন চলছে। আমরা যদি ভালো হই তবে এ জুলুম থাকবে না।

তিনি বলেন, সৃষ্টিকর্তার নিকট দোয়া করি বিশ্বের সব মুসলমানের ওপর শান্তি বর্ষিত হোক।

সোমবার দুপুরে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ মাঠে ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেফাজতে ইসলামের আমীর এ সব কথা বলেন।

মুসল্লিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কাফেরদের যারা ক্ষমা করবেন তারাও কাফের। বলেন কাদিয়ানীরা কাফের তাদের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। বাংলাদেশে তারা থাকবে কিন্তু অন্যান্য ধর্মের মানুষের মতো। তারা মারা গেলে মুসলমানদের সঙ্গে কবরে দাফন করা যাবে না বলেও মন্তব্য করেন আহাম্মদ শফী।

হেফাজতে ইসলামের নেতার কুড়িগ্রামে এই প্রথম আগমনে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আলেম ওলামাসহ লক্ষাধিক মুসল্লি সম্মেলনে অংশ নেন।

সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত মহাসম্মেলনে আবদুল হক হক্কানী সাহেবের সভাপতিত্বে আল্লামা নুরুল ইসলাম ওলিপুরী, আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী, মাওলানা কাজী ফজলুল করিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার দাবি জানান।

এর আগে আহম্মদ শফি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রাম সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অবতরণ করেন এবং সমাবেশ শেষে বিকাল ৪টার দিকে চলে যান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন