কুড়িগ্রামে শিবিরের ৬ নেতাকর্মী আটক
jugantor
কুড়িগ্রামে শিবিরের ৬ নেতাকর্মী আটক

  কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি  

০৪ মার্চ ২০২০, ১৮:৪৯:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

শিবির

কুড়িগ্রাম সদরের বিভিন্ন ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়ে ছয় শিবিরের নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার তাদের আটক করে কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছে বিপুল পরিমাণ সাংগঠনিক বইপত্র ও নথি উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার মহিখোচা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে ওমর ফারুক (২১), ফুলবাড়ী উপজেলার ভাঙ্গামোড় এলাকার তৈয়ব আলীর ছেলে আতিকুর রহমান (১৮), উলিপুর উপজেলার পশ্চিম কালুডাঙ্গা এলাকার আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে আতাউর রহমান (১৯), চিলমারী উপজেলার জুম্মাপাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে মোতালিব মিয়া (১৬), রাজিবপুর উপজেলার চর-ভেলামারী এলাকার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে নুর মোহাম্মদ (২০) ও উলিপুর উপজেলার তবকপুর এলাকার এবাদুল হকের ছেলে মামুনুর রশিদ (২০)।

পুলিশ জানায়, এদের মধ্যে ওমর ফারুকের বাড়ি লালমনিরহাট জেলায় বাকি সবার বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায়।

বুধবার দুপুরে এক প্রেসব্রিফিংয়ে সব তথ্য জানান কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম)। এ সময় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রেসব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জানান, বিভিন্ন ছাত্রাবাসে শিবিরের নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছে এমন খবরে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে পালিয়ে গেলেও ছয়জনকে আটক করা হয়।

এ সময় তাদের কাছে সাংগঠনিক বইপত্র, জিহাদী বই, নথি, সদস্য ফরম, রিসিটসহ বিভিন্ন কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে।

কুড়িগ্রামে শিবিরের ৬ নেতাকর্মী আটক

 কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি 
০৪ মার্চ ২০২০, ০৬:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিবির
শিবির। ছবি: যুগান্তর

কুড়িগ্রাম সদরের বিভিন্ন ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়ে ছয় শিবিরের নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। 

বুধবার তাদের আটক করে কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছে বিপুল পরিমাণ সাংগঠনিক বইপত্র ও নথি উদ্ধার করা হয়। 

আটককৃতরা হলেন- লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার মহিখোচা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে ওমর ফারুক (২১), ফুলবাড়ী উপজেলার ভাঙ্গামোড় এলাকার তৈয়ব আলীর ছেলে আতিকুর রহমান (১৮), উলিপুর উপজেলার পশ্চিম কালুডাঙ্গা এলাকার আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে আতাউর রহমান (১৯), চিলমারী উপজেলার জুম্মাপাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে মোতালিব মিয়া (১৬), রাজিবপুর উপজেলার চর-ভেলামারী এলাকার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে নুর মোহাম্মদ (২০) ও উলিপুর উপজেলার তবকপুর এলাকার এবাদুল হকের ছেলে মামুনুর রশিদ (২০)। 

পুলিশ জানায়, এদের মধ্যে ওমর ফারুকের বাড়ি লালমনিরহাট জেলায় বাকি সবার বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায়। 

বুধবার দুপুরে এক প্রেসব্রিফিংয়ে সব তথ্য জানান কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম)। এ সময় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রেসব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জানান, বিভিন্ন ছাত্রাবাসে শিবিরের নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছে এমন খবরে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে পালিয়ে গেলেও ছয়জনকে আটক করা হয়। 

এ সময় তাদের কাছে সাংগঠনিক বইপত্র, জিহাদী বই, নথি, সদস্য ফরম, রিসিটসহ বিভিন্ন কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন