দিনাজপুরে অ্যাম্বুলেন্সে পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেল শ্যালক ও দুলাভাইয়ের
jugantor
দিনাজপুরে অ্যাম্বুলেন্সে পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেল শ্যালক ও দুলাভাইয়ের

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

০৭ মার্চ ২০২০, ২০:৩১:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্ঘটনা

দিনাজপুরের বিরলে রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সে পিষ্ট হয়ে রাব্বী (২৩) ও লাবু (২৫) নামে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বিক্ষুব্ধ লোকজন অ্যাম্বুলেন্সটি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে।

শনিবার বিকালে দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার তেঘরা বাজারদীঘি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রাব্বী বিরল উপজেলার তেঘরা মহেশপুর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে এবং লাবু একই উপজেলার চককাঞ্চন নতুনপাড়া এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। রাব্বী ও লাবু সম্পর্কে শ্যালক-দুলাভাই।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ থেকে গর্ভবতী রোগী নিয়ে একটি অ্যাম্বুলেন্স বোঁচাগঞ্জ হয়ে দিনাজপুর শহরের দিকে আসছিল। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সটি বিরল উপজেলার তেঘরা বাজারদীঘি নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীতগামী একটি মোটসাইকেলকে চাপা দেয়।

এতে মোটসাইকেলসহ আরোহীরা অ্যাম্বুলেন্সের নিচে আটকে যায়। এই অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সটি এগুতে থাকে। ফলে অ্যাম্বুলেন্সের নিচে আটকা পড়া রাব্বী ও লাবু পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। চুর্ণবিচুর্ণ হয়ে যায় মোটরসাইকেলটি।

স্থানীয়রা এগিয়ে এসে অ্যাম্বুলেন্সটিকে আটক করে। এ সময় চালক পালিয়ে যায়। পরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী গর্ভবতী রোগীটিকে বিকল্প ব্যবস্থায় হাসপাতালে পাঠিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটিতে অগ্নিসংযোগ করে।

এরপর এলাকাবাসী দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে বিরল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীকে শান্ত করে যান চলাচল স্বাভাবিক করে দেয়।

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে যান। ফায়ার সার্ভিসের দিনাজপুর সিনিয়র সহকারী স্টেশন মাস্টার শহীদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে এসে তারা অ্যাম্বুলেন্সের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

বিরল থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

দিনাজপুরে অ্যাম্বুলেন্সে পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেল শ্যালক ও দুলাভাইয়ের

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
০৭ মার্চ ২০২০, ০৮:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দুর্ঘটনা
দুর্ঘটনা। প্রতীকী ছবি

দিনাজপুরের বিরলে রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সে পিষ্ট হয়ে রাব্বী (২৩) ও লাবু (২৫) নামে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বিক্ষুব্ধ লোকজন অ্যাম্বুলেন্সটি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে। 

শনিবার বিকালে দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার তেঘরা বাজারদীঘি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহত রাব্বী বিরল উপজেলার তেঘরা মহেশপুর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে এবং লাবু একই উপজেলার চককাঞ্চন নতুনপাড়া এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। রাব্বী ও লাবু সম্পর্কে শ্যালক-দুলাভাই। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ থেকে গর্ভবতী রোগী নিয়ে একটি অ্যাম্বুলেন্স বোঁচাগঞ্জ হয়ে দিনাজপুর শহরের দিকে আসছিল। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সটি বিরল উপজেলার তেঘরা বাজারদীঘি নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীতগামী একটি মোটসাইকেলকে চাপা দেয়। 

এতে মোটসাইকেলসহ আরোহীরা অ্যাম্বুলেন্সের নিচে আটকে যায়। এই অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সটি এগুতে থাকে। ফলে অ্যাম্বুলেন্সের নিচে আটকা পড়া রাব্বী ও লাবু পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। চুর্ণবিচুর্ণ হয়ে যায় মোটরসাইকেলটি। 

স্থানীয়রা এগিয়ে এসে অ্যাম্বুলেন্সটিকে আটক করে। এ সময় চালক পালিয়ে যায়। পরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী গর্ভবতী রোগীটিকে বিকল্প ব্যবস্থায় হাসপাতালে পাঠিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটিতে অগ্নিসংযোগ করে। 

এরপর এলাকাবাসী দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে বিরল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীকে শান্ত করে যান চলাচল স্বাভাবিক করে দেয়। 

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে যান। ফায়ার সার্ভিসের দিনাজপুর সিনিয়র সহকারী স্টেশন মাস্টার শহীদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে এসে তারা অ্যাম্বুলেন্সের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

বিরল থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন