দুমকিতে চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ভুল রোগ নির্ণয়ের অভিযোগ

  দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ০৯ মার্চ ২০২০, ১৮:২৯:১২ | অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর দুমকিতে লুথ্যারান হেলথ কেয়ার বাংলাদেশের (এলএইচসিবি) চিকিৎসকের ভুল রোগ নির্ণয়ের কারণে রোগীদের ভয়াবহ মানুষিক বিপর্যয় ও আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার দুমকি সাতানী গ্রামের ভুক্তভোগী গৃহবধূ সুরাইয়া বেগমের স্বামী মো. মেহেদী হাসান হাসপাতালটির চিকিৎসক ডা. অন্তরা হালদারের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে বলা হয়, শারীরিক অসুস্থতায় চিকিৎসার জন্য ২৭ জানুয়ারি তার স্ত্রী সুরাইয়া বেগমকে লুথ্যারান হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক অন্তরা হালদারের কাছে যান। রক্ত, মল-মূত্র, আল্ট্রাসনোগ্রামসহ বেশ কয়েকটি টেস্ট করানোর পর রোগীর পেটে টিউমার নির্ণয় করে দ্রুত তা অপারেশন করানোর পরামর্শ দেন।

রোগী সুরাইয়ার স্বামী মেহেদি হাসান স্ত্রীকে নিয়ে ২ ফেব্রুয়ারি বরিশাল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে ভর্তি করে সহযোগী অধ্যাপক ডা. ফরিদা বেগমকে দেখান। রোগীর নানাবিধ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর টিউমারের কোনো অস্তিত্ব নেই বলে তিনি আশ্বস্ত করেন।

পরবর্তীতে একইদিন পুরোপুরি নিশ্চিত হতে ওই রোগীকে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে বহির্বিভাগে ডা. রেহেনা ফেরদৌসকে দেখানো হয়। ডা. রেহেনা ফেরদৌস রোগীর পেটে কোনো টিউমার হয়নি জানালে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এখন প্রশ্ন উঠছে, লুথ্যারান হাসপাতাল এখানে কোন চিকিৎসা দিচ্ছে? নাকি রোগীকে জিম্মি করে অর্থ হাতানোর অবৈধ বাণিজ্য করছে?

এলএইচসিবির প্রশাসনিক কর্মকর্তা ডা. ডেভিড ঘোষ বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। টেস্ট রিপোর্টের ভিত্তিতেই চিকিৎসক রোগ নির্ণয় করে থাকে। ওই রোগীর ক্ষেতে ভুল ডায়াগোনসিসের বিষয়টি নজরে এলে রোগীর অভিভাবকদের আসতে বলা হয়েছিল। তারা না আসায় এবং ডা. অন্তরা হালদার চাকরি ছেড়ে চলে যাওয়ায় কিছুই করা সম্ভব হয়নি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত