ব্রহ্মপুত্র নদে মৃত ব্যক্তির কাপড় ধুতে গিয়ে ছাত্রীর মৃত্যু
jugantor
ব্রহ্মপুত্র নদে মৃত ব্যক্তির কাপড় ধুতে গিয়ে ছাত্রীর মৃত্যু

  দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি  

১০ মার্চ ২০২০, ২১:২১:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় মৃত ব্যক্তির কাপড় ধুতে গিয়ে একই পরিবারের ৬ জন ব্রহ্মপুত্র নদের গর্তে পড়ে যায়। এদের মধ্যে ৫ জনকে উদ্ধার করা গেলেও সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নে পোল্যাকান্দি ব্রিজের নিচে ব্রহ্মপুত্র নদে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী মর্জিনা জানান, দুইদিন আগে হাসেমপুর গ্রামের সায়েম মিয়ার মৃত্যু হয়। মৃত নানার পরিবারের ব্যবহৃত কাপড় ধুতে মঙ্গলবার দুপুরে পোল্যাকান্দি ব্রিজের নিচে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে নামে একই পরিবারের লোকজনসহ ১০-১২ জন। কাপড় ধোয়া ও গোসলের সময় ৬-৭ জন গর্তে পড়ে তলিয়ে যায়।

পোল্যাকান্দি গ্রামের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আনোয়ারার মেয়ে অনিকা, হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র ছাদেকুল, গৃহবধূ শারমিনসহ আরও ২-৩ জনকে টেনে উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজ থাকে পোল্যাকান্দি রহমানিয়া মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাসেমপুর গ্রামের আক্কা মিয়ার মেয়ে বৃষ্টি।

প্রায় দেড় ঘণ্টা পর স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় পুলিশ জাল ফেলে উদ্ধার করে বৃষ্টিকে দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে বৃষ্টির সহপাঠী, স্বজন স্থানীয় লোকজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেওয়ানগঞ্জ সার্কেল রাকিবুল হাসান, মডেল থানার ওসি এমএ ময়নুল ইসলাম উদ্ধার কার্যক্রমের সময় উপস্থিত ছিলেন।

ব্রহ্মপুত্র নদে মৃত ব্যক্তির কাপড় ধুতে গিয়ে ছাত্রীর মৃত্যু

 দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি 
১০ মার্চ ২০২০, ০৯:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় মৃত ব্যক্তির কাপড় ধুতে গিয়ে একই পরিবারের ৬ জন ব্রহ্মপুত্র নদের গর্তে পড়ে যায়। এদের মধ্যে ৫ জনকে উদ্ধার করা গেলেও সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নে পোল্যাকান্দি ব্রিজের নিচে ব্রহ্মপুত্র নদে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী মর্জিনা জানান, দুইদিন আগে হাসেমপুর গ্রামের সায়েম মিয়ার মৃত্যু হয়। মৃত নানার পরিবারের ব্যবহৃত কাপড় ধুতে মঙ্গলবার দুপুরে পোল্যাকান্দি ব্রিজের নিচে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে নামে একই পরিবারের লোকজনসহ ১০-১২ জন। কাপড় ধোয়া ও গোসলের সময় ৬-৭ জন গর্তে পড়ে তলিয়ে যায়।

পোল্যাকান্দি গ্রামের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আনোয়ারার মেয়ে অনিকা, হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র ছাদেকুল, গৃহবধূ শারমিনসহ আরও ২-৩ জনকে টেনে উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজ থাকে পোল্যাকান্দি রহমানিয়া মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাসেমপুর গ্রামের আক্কা মিয়ার মেয়ে বৃষ্টি।

প্রায় দেড় ঘণ্টা পর স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় পুলিশ জাল ফেলে উদ্ধার করে বৃষ্টিকে দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে বৃষ্টির সহপাঠী, স্বজন স্থানীয় লোকজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেওয়ানগঞ্জ সার্কেল রাকিবুল হাসান, মডেল থানার ওসি এমএ ময়নুল ইসলাম উদ্ধার কার্যক্রমের সময় উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন