আখাউড়ায় ইউএনওর সঙ্গে থাকা বিদেশ ফেরত সেই অধ্যক্ষকে জরিমানা

  আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ১৯ মার্চ ২০২০, ২২:৪৩:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

আখাউড়ায় ইউএনওর সঙ্গে থাকা বিদেশ ফেরত মো. শাহজাহান মিয়াকে (তীর চিহ্ন দেয়া) জরিমানা

ভ্রাম্যমাণ আদালতে আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাহমীনা আক্তার রেইনার সঙ্গে থাকা স্থানীয় জাহানারা হক মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান মিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে এ জরিমানা করেন।

এর আগে হোম কোয়ারেন্টাইনের আদেশ না মানা লন্ডন ফেরত অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান মিয়াকে সঙ্গে নিয়েই আখাউড়া পৌর শহরের দুর্গাপুর গ্রামের এক প্রবাসীর বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

এ নিয়ে সমালোচনা ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক)।

স্থানীয়রা জানান, ইউএনও তাহমীনা আক্তার রেইনা দুর্গাপুরে বাহরাইন প্রবাসী রাসেল মিয়াকে (৩৪) ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম না মানায় তাকে এই জরিমানা করা হয়। এ সময় ইউএনওর সঙ্গে ছিলেন সদ্য লন্ডন থেকে দেশে ফেরা স্থানীয় জাহনারা হক মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান মিয়া।

তিনি সস্ত্রীক গত ৮ মার্চ লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নিয়ম না মেনেই চলছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ইউএনও প্রবাসীদের খোঁজ-খবরে বের হলে অধ্যক্ষ শাহজাহান মিয়া তার সঙ্গী হন।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি সামাল দিতে ওই অধ্যক্ষ শাহজাহান মিয়াকে ডেকে আনেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ঘটনায় আখাউড়ায় আলোড়ন শুরু হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও তাহমীনা আক্তার রেইনা বলেন, আমি অধ্যক্ষ শাহজাহান মিয়াকে চিনি না। তিনি বিদেশ থেকে সম্প্রতি ফিরে এসেছেন সে বিষয়েও আমি জানতাম না। পরে জানতে পেরে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এ দিকে অধ্যক্ষ শাহজাহান মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ দিকে করোনা আক্রান্ত প্রবাস থেকে ফিরে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৯ সহস্রাধিক প্রবাসীর খোঁজে তৎপর হয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেইল পাওয়ার পরই টনক নড়ে তাদের। ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে ২৮ জনকে। জরিমানা করা হয় ৩ জনকে। জেলা পুলিশ নেমেছে প্রচার-প্রচারণায়।

এর আগে গতকাল বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ৯ হাজার ২০৮ জন প্রবাসীর দেশে ফেরার তথ্য দিয়ে একটি মেইল পাঠানো হয় জেলা পুলিশের কাছে। ওইদিন এই প্রবাসীদের মধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন মাত্র ১৪ জন।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত