গভীর রাতে আগুনে প্রাণ হারালেন ঘুমন্ত স্কুলশিক্ষিকা
jugantor
গভীর রাতে আগুনে প্রাণ হারালেন ঘুমন্ত স্কুলশিক্ষিকা

  ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি  

২৮ মার্চ ২০২০, ১৩:৪৪:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

গভীর রাতে আগুনে প্রাণ হারালেন ঘুমন্ত স্কুলশিক্ষিকা

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় গভীর রাতে বসতঘরের আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত এক স্কুলশিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম মাহফুজা পারভীন (৩৮)।

শুক্রবার রাতে উপজেলার দক্ষিণ পূর্ব ভাণ্ডারিয়া মহল্লার হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মাহফুজা পারভীন মাওলানা ওহাব হাওলাদারের (মাস্টার) মেয়ে। তিনি স্থানীয় খান সাহেব আবদুল মজিদ জোমাদ্দার কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষিকা ছিলেন।

নিহত মাহফুজা পারভীনের ছোট ভাই (ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি) মামুন হোসেন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঘরের মধ্যে প্রচণ্ড ধোঁয়ার কারণে তার ঘুম ভেঙে যায়। আগুনে ঘরের দোতালায় ঘুমন্ত বড়বোন মাহফুজা আর বের হতে পারেনি।

খবর পেয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ততক্ষণে ঘর দুটি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ভাণ্ডারিয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মো. ফারুক হোসেন জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের কারণে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটতে পারে।

গভীর রাতে আগুনে প্রাণ হারালেন ঘুমন্ত স্কুলশিক্ষিকা

 ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি 
২৮ মার্চ ২০২০, ০১:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গভীর রাতে আগুনে প্রাণ হারালেন ঘুমন্ত স্কুলশিক্ষিকা
ফাইল ছবি

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় গভীর রাতে বসতঘরের আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত এক স্কুলশিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম মাহফুজা পারভীন (৩৮)।

শুক্রবার রাতে উপজেলার দক্ষিণ পূর্ব ভাণ্ডারিয়া মহল্লার হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মাহফুজা পারভীন মাওলানা ওহাব হাওলাদারের (মাস্টার) মেয়ে। তিনি স্থানীয় খান সাহেব আবদুল মজিদ জোমাদ্দার কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষিকা ছিলেন।

নিহত মাহফুজা পারভীনের ছোট ভাই (ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি) মামুন হোসেন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঘরের মধ্যে প্রচণ্ড ধোঁয়ার কারণে তার ঘুম ভেঙে যায়।  আগুনে ঘরের দোতালায় ঘুমন্ত বড়বোন মাহফুজা আর বের হতে পারেনি।

খবর পেয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ততক্ষণে ঘর দুটি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ভাণ্ডারিয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মো. ফারুক হোসেন জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের কারণে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটতে পারে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন