কিশোরগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১
jugantor
কিশোরগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও ইটনা প্রতিনিধি  

০৩ এপ্রিল ২০২০, ১৯:৫৯:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনায় পূর্ববিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বাবুল মিয়া (৫৫)  নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৪ জন।

উপজেলার বড়িবাড়ী ইউনিয়নের ময়নাহাটি গ্রামে শুক্রবার সকালে এ সংঘর্ষ হয়। নিহত বাবুল মিয়া ওই গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, বাবুল মিয়া ও তাজুল ইসলামের পরিবারের মধ্যে ১০ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। কয়েক বছর আগে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বাবুল মিয়ার ফুফাতো ভাই মন্নাফ মিয়া নিহত হন। এ ঘটনায় তাজুল ইসলামসহ কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন বাবুল মিয়া। ওই মামলা এখনও চলমান।

চলমান বিরোধের জেরে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তাজুল ইসলামের লোকজনের বল্লমের আঘাতে বাবুল মিয়াসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়। বাবুল মিয়াকে ইটনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইটনা থানার ওসি মুর্শেদ জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ হামলাকারী তাজুল ইসলামের পক্ষের ৪ জনকে আটক করেছে। লাশ ময়নাতদন্তে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কিশোরগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও ইটনা প্রতিনিধি 
০৩ এপ্রিল ২০২০, ০৭:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনায় পূর্ববিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বাবুল মিয়া (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৪ জন।

উপজেলার বড়িবাড়ী ইউনিয়নের ময়নাহাটি গ্রামে শুক্রবার সকালে এ সংঘর্ষ হয়। নিহত বাবুল মিয়া ওই গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, বাবুল মিয়া ও তাজুল ইসলামের পরিবারের মধ্যে ১০ বছর ধরে বিরোধ চলে আসছে। কয়েক বছর আগে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বাবুল মিয়ার ফুফাতো ভাই মন্নাফ মিয়া নিহত হন। এ ঘটনায় তাজুল ইসলামসহ কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন বাবুল মিয়া। ওই মামলা এখনও চলমান।

চলমান বিরোধের জেরে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তাজুল ইসলামের লোকজনের বল্লমের আঘাতে বাবুল মিয়াসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়। বাবুল মিয়াকে ইটনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইটনা থানার ওসি মুর্শেদ জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ হামলাকারী তাজুল ইসলামের পক্ষের ৪ জনকে আটক করেছে। লাশ ময়নাতদন্তে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।