‘বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের লাশ ভোলায় দাফন করতে দেয়া হবে না’

  যুগান্তর রিপোর্ট, ভোলা ১১ এপ্রিল ২০২০, ২০:৫২:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

বঙ্গবন্ধুর খুনি আবদুল মাজেদ। ফাইল ছবি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের হত্যাকারী খুনি বরখাস্তকৃত ক্যাপ্টেন মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর লাশ তার গ্রামের বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিনে দাফন করতে দেবে না ছাত্রলীগ।

শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে বোরহানউদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক মুজিব উল্যাহ পলাশ বিশ্বাসের যৌথ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় তারা।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনকের আত্মস্বীকৃত খুনি মাজেদের লাশ বোরহানউদ্দিনের প্রবেশ করে তাহলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বোরহানউদ্দিন শাখার নেতাকর্মীরা তা প্রতিহত করবে।

বোরহানউদ্দিন ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সম্পাদক পলাশ বিশ্বাস জানান, জাতির পিতা ও তার পরিবারের খুনি নরপশু মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর জাতি কলঙ্কমুক্ত হবে। কিন্তু তার লাশ বোরহানউদ্দিনের মাটিতে দাফন করে আমরা মাটিকে কলঙ্কিত করতে দেবো না।

এদিকে ভোলা-২ (বোরহানউদ্দিন-দৌলতখান) আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে লেখেন, নরপিশাচ, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি, ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ক্যাপ্টেন মাজেদকে গ্রেফতারের পর আমরা করোনাভাইরাসের কারনে উল্লাস প্রকাশ করতে পারিনি।

মহামান্য রাষ্ট্রপতি মহোদয় কর্তৃক, এই খুনির সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা বাতিলের মধ্যে দিয়ে তার ফাঁসির রায় কার্যকরে আর কোন বাধা নেই।
আমি দৃঢ়তার সাথে বলতে চাই- খুনি মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর তার মৃতদেহ যেন ভোলায় পাঠানো না হয়। যেহেতু এই খুনির গ্রামের বাড়ি আমার নির্বাচনী এলাকায়, সেহেতু তার মরদেহ ভোলায় পাঠানো হলে করোনা পরিস্থিতি উপেক্ষা করে হলেও আমি নিজে তা প্রতিহত করবো। আমি বেঁচে থাকতে এই ভোলার মাটিতে ঘৃন্য নরপশু মাজেদকে দাফন করতে দেব না।

এর আগে বৃহস্পতিবার বোরহানউদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিব উল্যাহ পলাশ বিশ্বাস সংবাদ সম্মেলনে জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ গ্রেফতার হওয়ার পর স্থানীয় হাসিব চৌধুরী বাঁধন নামে এক যুবক ফেসবুক থেকে স্ট্যাটাস দিয়ে আমাকে খুনি মাজেদের নাতি বলে দাবি করেন। এছাড়াও তিনি ঢাকার বিভিন্ন সাংবাদিকদের ভুল তথ্য দিয়ে রাজনৈতিকভাবে আমাকে ছোট করার জন্য পরিকল্পিতভাবে সংবাদ প্রচার করেন।

মুজিব উল্যাহ পলাশ আরো জানান, তার পিতা অজিউল্ল্যাহ বিশ্বাস স্বাধীনতার আগ থেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত। তার পুরো পরিবার স্বাধীনতার আগ থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। ভোলা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ ও বর্তমান সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুলের নেতৃত্বে সব সময়ই আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলো তার পরিবার। আর খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদের সঙ্গে তাদের কোনো রক্তের সম্পর্ক নেই।

ঘটনাপ্রবাহ : বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ গ্রেফতার

আরও
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত