কলেজছাত্রীর আঘাতে প্রাণ গেল ৪ সন্তানের বাবার
jugantor
কলেজছাত্রীর আঘাতে প্রাণ গেল ৪ সন্তানের বাবার

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি  

০৮ মে ২০২০, ১৯:৪৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ঠাকুরগাঁওয়ে ঝগড়া থামাতে গিয়ে কলেজছাত্রীর আঘাতে প্রাণ গেল চার সন্তানের বাবা লতিফের। শুক্রবার রানীশংকৈল উপজেলার পদমপুর শালবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কলেজছাত্রী জবেদা বেগমকে আটক করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। জবেদা ওই গ্রামের মোজাম্মেল হকের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের ৮০ বছর বয়সী সুফিয়া বেগমকে বাড়ির নিকট একটি রাস্তায় ডেকে নিয়ে মারপিট করছিল জবেদা। এ সময় ওই বৃদ্ধাকে বাঁচাতে যান প্রতিবেশী আব্দুল লতিফ।

একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে লতিফের অন্ডকোষ চেপে ধরে জবেদা। এতে সংজ্ঞা হারিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

রানীশংকৈল থানার ওসি আব্দুল মান্নান বলেন, নিহত লতিফের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কলেজছাত্রীর আঘাতে প্রাণ গেল ৪ সন্তানের বাবার

 ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি 
০৮ মে ২০২০, ০৭:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঠাকুরগাঁওয়ে ঝগড়া থামাতে গিয়ে কলেজছাত্রীর আঘাতে প্রাণ গেল চার সন্তানের বাবা লতিফের। শুক্রবার রানীশংকৈল উপজেলার পদমপুর শালবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কলেজছাত্রী জবেদা বেগমকে আটক করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। জবেদা ওই গ্রামের মোজাম্মেল হকের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের ৮০ বছর বয়সী সুফিয়া বেগমকে বাড়ির নিকট একটি রাস্তায় ডেকে নিয়ে মারপিট করছিল জবেদা। এ সময় ওই বৃদ্ধাকে বাঁচাতে যান প্রতিবেশী আব্দুল লতিফ। 

একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে লতিফের অন্ডকোষ চেপে ধরে জবেদা। এতে সংজ্ঞা হারিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। 

রানীশংকৈল থানার ওসি আব্দুল মান্নান বলেন, নিহত লতিফের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন