দেবিদ্বারে পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব
jugantor
দেবিদ্বারে পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

  দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

১৩ মে ২০২০, ০৮:৪১:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার দেবিদ্বারে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে নূর আলম (২৬) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে কুমিল্লা র‌্যাব-১১।

সোমবার কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের দেবিদ্বার উপজেলার পুরান বাজার এলাকায় বিশেষ অভিযানে পরিবহনে চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় ওই সদস্যকে আটক করে।

ওই দিন রাত সাড়ে ১০টায় আটককৃত আসামিসহ চারজনকে নাম উল্লেখ করে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন র‌্যাবের ডিএডি খালেদ। মঙ্গলবার বিকালে র‌্যাব র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর কুমিল্লাস্থ কার্যালয় এসব তথ্য জানায়।

মামলা অভিযোগ করা হয়, কুমিল্লার র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর একটি আভিযানিক দল সোমবার বিকালে দেবিদ্বার থানার পুরান বাজার এলাকায় বিশেষ অভিযান চালায়। এ সময় পরিবহন থেকে চাদা আদায় করার অভিযোগে চাদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য মো. নূর আলমকে (২৬) আটক করে র‌্যাব।

এ সময় তার কাছ থেকে চাঁদাবাজির নগদ ২ হাজার ৪'শ টাকা, মোবাইল ফোন ও চাঁদাবাজির কাজে ব্যবহৃত ১০০টি ভুয়া রশিদ উদ্ধার করে র‌্যাব।

পরে রাত সাড়ে ১০টায় র‌্যাবের ডিএডি খালেদ বাদী হয়ে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় অপর আসামিরা হলেন, উপজেলা সদরের সাদ্দাম হোসেন, মো. সুমন ও রুহুল আমীন। আটককৃত নূর আলম উপজেলার গুনাইঘর আজমত উল্লাহ মুন্সীবাড়ির মো. শাহ আলমের ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ইকতিয়ার মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটক নূর আলমসহ চারজনের বিরুদ্ধে সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় র‌্যাব বাদী হয়ে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছে। অন্য আসামিদের ধরার চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার ওসি জহিরুল আনোয়ার যুগান্তরকে জানান, র‌্যাব বাদী হয়ে দায়েরকৃত মামলায় নূর আলমকে থানায় হস্তান্তর করার পর মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

দেবিদ্বারে পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

 দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
১৩ মে ২০২০, ০৮:৪১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার দেবিদ্বারে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে নূর আলম (২৬) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে কুমিল্লা র‌্যাব-১১। 

সোমবার কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের দেবিদ্বার উপজেলার পুরান বাজার এলাকায় বিশেষ অভিযানে পরিবহনে চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় ওই সদস্যকে আটক করে। 

ওই দিন রাত সাড়ে ১০টায় আটককৃত আসামিসহ চারজনকে নাম উল্লেখ করে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন র‌্যাবের ডিএডি খালেদ। মঙ্গলবার বিকালে র‌্যাব র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর কুমিল্লাস্থ কার্যালয় এসব তথ্য জানায়। 

মামলা অভিযোগ করা হয়, কুমিল্লার র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর  একটি আভিযানিক দল সোমবার বিকালে দেবিদ্বার থানার পুরান বাজার এলাকায় বিশেষ অভিযান চালায়। এ সময় পরিবহন থেকে চাদা আদায় করার অভিযোগে চাদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য মো. নূর আলমকে (২৬) আটক করে র‌্যাব। 

এ সময় তার কাছ থেকে চাঁদাবাজির নগদ ২ হাজার ৪'শ টাকা, মোবাইল ফোন ও চাঁদাবাজির কাজে ব্যবহৃত ১০০টি ভুয়া রশিদ উদ্ধার করে র‌্যাব। 

পরে রাত সাড়ে ১০টায় র‌্যাবের ডিএডি খালেদ বাদী হয়ে দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় অপর আসামিরা হলেন, উপজেলা সদরের সাদ্দাম হোসেন, মো. সুমন ও রুহুল আমীন। আটককৃত নূর আলম উপজেলার গুনাইঘর আজমত উল্লাহ মুন্সীবাড়ির মো. শাহ আলমের ছেলে। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ইকতিয়ার মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটক নূর আলমসহ চারজনের বিরুদ্ধে সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় র‌্যাব বাদী হয়ে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছে। অন্য আসামিদের ধরার চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার ওসি জহিরুল আনোয়ার যুগান্তরকে জানান, র‌্যাব বাদী হয়ে দায়েরকৃত মামলায় নূর আলমকে থানায় হস্তান্তর করার পর মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন