স্বজনদের শোকসাগরে ভাসিয়ে খুলনার আলিফ না ফেরার দেশে

  খুলনা ব্যুরো ২৩ মার্চ ২০১৮, ১৯:১৪ | অনলাইন সংস্করণ

খুলনা

গর্ভধারিণী মা, প্রিয় বাবা,আত্মীয়স্বজন ও ভালোবাসার মানুষের বুকফাটা কান্না আর অশ্রুজলে সিক্ত করে না ফেরার দেশে চলে গেলেন নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত খুলনার আলিফুজ্জামান আলিফ।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর জেলার রূপসা উপজেলার বেলফুলিয়া ইসলামিয়া হাইস্কুল মাঠে জানাজা শেষে রাজাপুর মাদরাসা গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে ভোর পৌনে ৫টায় উপজেলার আইচগাতি গ্রামের বাড়িতে এসে পৌঁছায় আলিফের মরদেহ।

আলিফের জানাজায় শত শত মানুষের ঢল নামে। রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, প্রশাসনের কর্মকর্তা, আত্মীয়স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষী, প্রতিবেশীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ তার জানাজায় অংশ নেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বাবু, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আরাফাত হোসেন পল্টু, বর্তমান সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টা ৫৫ মিনিটে আলিফুজ্জামানসহ নেপাল ট্র্যাজেডিতে নিহত তিনজনের মরদেহবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারল্যাইন্সের বিজি-০৭২ নামে একটি ফ্লাইট শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে। পরে বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে আলিফুজ্জামানের বড় ভাই আশিকুর রহমান হামিম ও তার স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী শাহজাহান কামাল। ওই দিন সন্ধ্যায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে আলিফুজ্জামানের জানাজা শেষে খুলনার উদ্দেশে মাওয়া ঘাট হয়ে রওনা দেয় মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স।

শুক্রবার ভোরে কফিন তার বাড়িতে এসে পৌঁছে। মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স তার নিজ বাড়িতে পৌঁছালে সেখানে স্বজনসহ হাজার হাজার মানুষ দেখার জন্য ছুটে আসেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নিহত আলিফুজ্জামান বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ছিলেন। খুলনার সরকারি বিএল কলেজ থেকে এবার মাস্টার্স পরীক্ষা দিচ্ছিলেন তিনি। ৩ ভাইয়ের মধ্যে আলিফুজ্জামান ছিলেন মেঝ। তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা মোল্লা আসাদুজ্জামান।

উল্লেখ্য,গত ১২ মার্চ ইউএস-বাংলার বিএস ২১১ নামে একটি বিমান নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরের অদূরে বিধ্বস্ত হলে আলিফুজ্জামানসহ ২৬ বাংলাদেশি, ২২ নেপালি ও ১ চীনা নাগরিক নিহত হন।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter