দুই মেয়েকে পানিতে চুবিয়ে মারল বাবা ও সৎ মা!
jugantor
দুই মেয়েকে পানিতে চুবিয়ে মারল বাবা ও সৎ মা!

  কুমিল্লা ব্যুরো  

২৩ মে ২০২০, ১৬:৪৭:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মুরাদনগরে স্বর্ণা (১১) ও ফারিয়া (৫) নামে দুই শিশু সন্তানকে পানিতে চুবিয়ে হত্যার অভিযোগে উঠেছে বাবা ও সৎ মায়ের বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে উপজেলার নবীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় নিহত দুই কন্যার মা সোনিয়া আক্তার বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে বাবা সুমন মিয়া ও সৎ মা রুনা আক্তারের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত সৎ মা রুনা আক্তারকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, নবীপুর গ্রামের সুমন মিয়ার প্রথম স্ত্রী সোনিয়া আক্তারের দুই কন্যা স্বর্ণা ও ফারিয়া। এ পরিবার রেখেই সুমন ২ বছর আগে রুনা আক্তার নামে ওই নারীকে বিয়ে করেন। এ নিয়ে উভয় স্ত্রীর মাঝে কলহ বিবাদ চলে আসছিল। এরই সুত্র ধরে শুক্রবার রাতে পরিকল্পিতভাবে প্রথম স্ত্রীর সন্তান স্বর্ণা ও ফারিয়াকে বাবা সুমন ও সৎ রুনা অপহরণ করে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ওসি একেএম মনজুর আলম বলেন, নিহতদের মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। আর এরই পরিপ্রেক্ষিতে সৎ মা রুনা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দুই মেয়েকে পানিতে চুবিয়ে মারল বাবা ও সৎ মা!

 কুমিল্লা ব্যুরো 
২৩ মে ২০২০, ০৪:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মুরাদনগরে স্বর্ণা (১১) ও ফারিয়া (৫) নামে দুই শিশু সন্তানকে পানিতে চুবিয়ে হত্যার অভিযোগে উঠেছে বাবা ও সৎ মায়ের বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে উপজেলার নবীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় নিহত দুই কন্যার মা সোনিয়া আক্তার বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে বাবা সুমন মিয়া ও সৎ মা রুনা আক্তারের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত সৎ মা রুনা আক্তারকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, নবীপুর গ্রামের সুমন মিয়ার প্রথম স্ত্রী সোনিয়া আক্তারের দুই কন্যা স্বর্ণা ও ফারিয়া। এ পরিবার রেখেই সুমন ২ বছর আগে রুনা আক্তার নামে ওই নারীকে বিয়ে করেন। এ নিয়ে উভয় স্ত্রীর মাঝে কলহ বিবাদ চলে আসছিল। এরই সুত্র ধরে শুক্রবার রাতে পরিকল্পিতভাবে প্রথম স্ত্রীর সন্তান স্বর্ণা ও ফারিয়াকে বাবা সুমন ও সৎ রুনা অপহরণ করে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ওসি একেএম মনজুর আলম বলেন, নিহতদের মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। আর এরই পরিপ্রেক্ষিতে সৎ মা রুনা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন