বগুড়ার শিবগঞ্জে থানায় ঢুকে পুলিশকে মারধর

  বগুড়া ব্যুরো ২৮ মে ২০২০, ২৩:৫৪:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার শিবগঞ্জ থানায় ঢুকে পুলিশকে মারধর করে গ্রেফতারকৃত তিনজনকে ছিনিয়ে চেষ্টা করে কয়েকজন। এ অভিযোগে থানায় মামলার পর ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার সন্ধ্যার এ ঘটনায় এসআই আনোয়ার হোসেন ১২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

গ্রেফতার চারজনকে বৃহস্পতিবার বিকালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন শিবগঞ্জের নাগরবন্দর কালিপাড়ার তসলিম উদ্দিন (৬৫), তার ছেলে পূবালী ব্যাংক সাতমাথা শাখার ক্যাশিয়ার তৌহিদুল ইসলাম (৩০), একই গ্রামের মৃত জোব্বার প্রামাণিকের ছেলে হারুনার রশিদ (৬০) ও নাটমরিচা গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে হাফিজার রহমান (৩৫)।

এসআই আনোয়ার হোসেন জানান, শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতরে গাছ থেকে আম ও কাঁঠাল চুরি হয়। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তারক নাথ কুণ্ডু থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বুধবার বিকালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে তদন্ত করে আসেন।

পরে উপজেলার কালিপাড়া গ্রামের কিছু লোকজন হাসপাতালের দেওয়ায় ডিঙ্গিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে। তারা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বাসভবনে হামলা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ আবারো হাসপাতালে গেলে পূবালী ব্যাংক কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম ও আশপাশের গ্রামের অর্ধশত নারী-পুরুষ এসে পুলিশকে ঘেরাও করেন। পরে থানা থেকে অতিরিক্ত ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে সহকর্মীদের উদ্ধার করেন।

এ সময় তৌহিদুল ইসলাম, হারুনার রশিদ ও হাফিজার রহমানকে গ্রেফতার করে থানায় আনা হয়। বাহিরে প্রচার হয় তাদের থানায় নিয়ে মারধর করা হচ্ছে। তখন তৌহিদুলের বাবা তসলিম উদ্দিন স্থানীয় কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে জোরপূর্বক থানায় ঢোকেন। তারা কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের মারপিট করে গ্রেফতার তিনজনকে ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ তসলিম উদ্দিনকেও গ্রেফতার করলে অন্যরা পালিয়ে যায়।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত