নেত্রকোনায় স্কুল দফতরির দুই পা ভেঙে দিল প্রতিপক্ষ 
jugantor
নেত্রকোনায় স্কুল দফতরির দুই পা ভেঙে দিল প্রতিপক্ষ 

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

৩১ মে ২০২০, ২০:৫৫:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার কে. বাঁশাটী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী কাম দফতরি উজ্জল মিয়ার (৩০) দুই পা ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে পূবর্ধলা থানায় মামলা হয়েছে। আহত উজ্জল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, জেলার পূর্বধলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের বাশাউড়া গ্রামের উজ্জল মিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের এনামুল হকের বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে গত ২৮ মে সকালে উজ্জল মিয়াকে বাড়ির সামনে একা পেয়ে এনামুল হক তার লোকজন বেধড়ক মারপিট করে দুটি পা ভেঙে দেয়। এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উজ্জল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

এ ঘটনায় উজ্জল মিয়ার ভাতিজা রইছ মিয়া বাদী হয়ে শনিবার রাতে এনামুল হক, আমিনুল হক, মোজাম্মেল হোসেন, লাক মিয়ার নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় মামলা করেন।

অন্যদিকে এনামুল হক ঘটনার দিন উজ্জল মিয়ার বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় চুরির অভিযোগ করেন।

পূর্বধলা উপজেলা শিক্ষা অফিসার আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, নৈশপ্রহরীর ওপর হামলার কথা শুনেছেন। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইউএনওর মাধ্যমে বিষয়টি থানার ওসিকে জানানো হয়েছে।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, উভয়পক্ষ থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নেত্রকোনায় স্কুল দফতরির দুই পা ভেঙে দিল প্রতিপক্ষ 

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
৩১ মে ২০২০, ০৮:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার কে. বাঁশাটী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী কাম দফতরি উজ্জল মিয়ার (৩০) দুই পা ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। 

এ ঘটনায় শনিবার রাতে পূবর্ধলা থানায় মামলা হয়েছে। আহত উজ্জল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
 
সূত্র জানায়, জেলার পূর্বধলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের বাশাউড়া গ্রামের উজ্জল মিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের এনামুল হকের বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে গত ২৮ মে সকালে উজ্জল মিয়াকে বাড়ির সামনে একা পেয়ে এনামুল হক তার লোকজন বেধড়ক মারপিট করে দুটি পা ভেঙে দেয়। এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উজ্জল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

এ ঘটনায় উজ্জল মিয়ার ভাতিজা রইছ মিয়া বাদী হয়ে শনিবার রাতে এনামুল হক, আমিনুল হক, মোজাম্মেল হোসেন, লাক মিয়ার নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় মামলা করেন। 

অন্যদিকে এনামুল হক ঘটনার দিন উজ্জল মিয়ার বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় চুরির অভিযোগ করেন।
 
পূর্বধলা উপজেলা শিক্ষা অফিসার আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, নৈশপ্রহরীর ওপর হামলার কথা শুনেছেন। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইউএনওর মাধ্যমে বিষয়টি থানার ওসিকে জানানো হয়েছে।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, উভয়পক্ষ থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন