ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা
jugantor
ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

  ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি   

০১ জুন ২০২০, ১৭:৫৬:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর নৃশংস হামলার ঘটনা ঘটেছে।এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।তবে হামলার সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও কোনো আসামিকে গ্রেফতার গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নে এই হামলায় আহত হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মাস্টার ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী হামিদা খাতুন (৮২)। ইসমাইল হোসেনের বড় ছেলে ও ভবানীপুর ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা হেলালুর রহমান (৬৩), ভাতিজা জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল ফাহিমসহ অন্তত ৮ জন।

ভূক্তভোগীদের অভিযোগ, স্থানীয় প্রভাবশালী আবদুস সালাম ও তার ছেলে নাসিমের সন্ত্রাসী বাহিনী এই হামলা চালায় গত ২৪ মে।

আহত হেলালুর রহমান ছোট ভাই অধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম বাদী হয়ে আবদুস সালাম ,নাসিম, নাসির,আলীসহ ৯ জনকে আসামী করে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা করেছেন।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,প্রভাবশালী আবদুস সালামের প্রত্যক্ষ মদদে তার ছেলে নাসিম ও তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় দাঁড়ালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ২৪ মে হেলালুর রহমানের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় হেলালুর রহমান, তার বৃদ্ধা মা, ভাই, ছেলে,৩ ভাতিজাসহ পরিবারের ৮ জন আহত হন।

আশংকাজনক অবস্থায় হেলালুর রহমানকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মামলা বাদী অধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম বলেন, মামলা হওয়ার ৯ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি, উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা রুজু করেছে হামলাকারীরা।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন,ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ফুলবাড়িয়া থানার ওসি আজিজুর রহমান বলেন,দুপক্ষই মামলা করেছে। ঘটনাস্থল নিজেই গিয়ে তদন্ত করেছি।এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিকতে মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচী পালন করেছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকবাসী।

ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

 ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি  
০১ জুন ২০২০, ০৫:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলা
ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় আহত হেলালুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

ফুলবাড়িয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর নৃশংস হামলার ঘটনা ঘটেছে।এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।তবে হামলার সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও কোনো আসামিকে গ্রেফতার গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নে এই হামলায় আহত হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মাস্টার ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী হামিদা খাতুন (৮২)। ইসমাইল হোসেনের বড় ছেলে ও ভবানীপুর ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা হেলালুর রহমান (৬৩), ভাতিজা জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল ফাহিমসহ অন্তত ৮ জন।

ভূক্তভোগীদের অভিযোগ, স্থানীয় প্রভাবশালী আবদুস সালাম ও তার ছেলে নাসিমের সন্ত্রাসী বাহিনী এই হামলা চালায় গত ২৪ মে। 

আহত হেলালুর রহমান ছোট  ভাই অধ্যক্ষ  মাহবুবুল আলম  বাদী  হয়ে  আবদুস  সালাম ,নাসিম, নাসির,আলীসহ  ৯ জনকে আসামী  করে  ফুলবাড়িয়া  থানায়  মামলা  করেছেন।

মামলার এজাহার ও স্থানীয়  সূত্রে  জানা  গেছে,প্রভাবশালী  আবদুস সালামের  প্রত্যক্ষ  মদদে  তার ছেলে নাসিম  ও তাদের  সন্ত্রাসী  বাহিনী   দেশীয়  দাঁড়ালো  অস্ত্রশস্ত্র  নিয়ে  ২৪ মে হেলালুর রহমানের বাড়িতে হামলা  চালায়। এসময়  হেলালুর   রহমান,  তার বৃদ্ধা মা, ভাই, ছেলে,৩ ভাতিজাসহ  পরিবারের ৮ জন আহত  হন। 

আশংকাজনক   অবস্থায়  হেলালুর  রহমানকে  ময়মনসিংহ   মেডিকেল  কলেজ  হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়।  

মামলা বাদী অধ্যক্ষ  মাহবুবুল আলম  বলেন, মামলা হওয়ার ৯ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি, উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা রুজু করেছে হামলাকারীরা।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন,ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ফুলবাড়িয়া থানার ওসি আজিজুর রহমান বলেন,দুপক্ষই মামলা করেছে। ঘটনাস্থল নিজেই গিয়ে তদন্ত করেছি।এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

এদিকে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিকতে মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচী পালন করেছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকবাসী। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন