রাজশাহী বিভাগে প্রথম হয়েছে ঈশ্বরদীর নাফিস
jugantor
রাজশাহী বিভাগে প্রথম হয়েছে ঈশ্বরদীর নাফিস

  ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি  

০২ জুন ২০২০, ১০:৩৮:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ

ঈশ্বরদীর নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ এবারের এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। সর্বোচ্চ ১২৭৪ নম্বর পেয়ে সে এ কৃতিত্ব অর্জন করে।

ঈশ্বরদীর ইক্ষু গবেষণা কেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র নাফিস ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মো. মাসুমের ছেলে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হাসানুজ্জামান জানান, এসএসসি পরীক্ষায় মোট ১৩০০ নম্বরের মধ্যে নাফিস ১২৭৪ নম্বর পেয়েছে। এটিই রাজশাহী বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে সেরা নম্বর। ক্যাডেটসহ অনেক নামিদামি স্কুলকে পেছনে ফেলে তার স্কুলের ছাত্র নাফিসের এ কৃতিত্বপূর্ণ রেজাল্টে আমরা গর্বিত।

সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোতলেবুর রহমান মিনহাজ বলেন, আমার ইউনিয়নের একজন ছাত্র গোটা বিভাগের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করার গৌরব অর্জন করায় আমরা অনেক আনন্দিত ও গর্বিত।

তিনি বলেন, মেধাবী ছাত্র নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ গোটা ঈশ্বরদী ও পাবনা জেলার মুখ উজ্জ্বল করেছে।

নাফিসের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ইতিপূর্বে সে পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পায়। নাফিস সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালে ঈশ্বরদী উপজেলার মধ্যে প্রথম স্থান, পাবনা জেলার মধ্যে প্রথম স্থান এবং রাজশাহী বিভাগের মধ্যে দ্বিতীয় হওয়ার মাধ্যমে তার ধারাবাহিক মেধার স্বাক্ষর রাখে।

রাজশাহী বিভাগে প্রথম হয়েছে ঈশ্বরদীর নাফিস

 ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি 
০২ জুন ২০২০, ১০:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ
নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ। ছবি: যুগান্তর

ঈশ্বরদীর নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ এবারের এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। সর্বোচ্চ ১২৭৪ নম্বর পেয়ে সে এ কৃতিত্ব অর্জন করে। 

ঈশ্বরদীর ইক্ষু গবেষণা কেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র নাফিস ঈশ্বরদীর সাহাপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মো. মাসুমের ছেলে। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হাসানুজ্জামান জানান, এসএসসি পরীক্ষায় মোট ১৩০০ নম্বরের মধ্যে নাফিস ১২৭৪ নম্বর পেয়েছে। এটিই রাজশাহী বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে সেরা নম্বর। ক্যাডেটসহ অনেক নামিদামি স্কুলকে পেছনে ফেলে তার স্কুলের ছাত্র নাফিসের এ কৃতিত্বপূর্ণ রেজাল্টে আমরা গর্বিত।

সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোতলেবুর রহমান মিনহাজ বলেন, আমার ইউনিয়নের একজন ছাত্র গোটা বিভাগের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করার গৌরব অর্জন করায় আমরা অনেক আনন্দিত ও গর্বিত। 

তিনি বলেন, মেধাবী ছাত্র নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ গোটা ঈশ্বরদী ও পাবনা জেলার মুখ উজ্জ্বল করেছে।

নাফিসের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ইতিপূর্বে সে পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পায়। নাফিস সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালে ঈশ্বরদী উপজেলার মধ্যে প্রথম স্থান, পাবনা জেলার মধ্যে প্রথম স্থান এবং রাজশাহী বিভাগের মধ্যে দ্বিতীয় হওয়ার মাধ্যমে তার ধারাবাহিক মেধার স্বাক্ষর রাখে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : এসএসসি পরীক্ষা-২০২০

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন