পূবাইলে চাঁদা না দেয়ায় ছাত্রলীগ নেতাকে ধর্ষণ মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা! 

  পূবাইল(গাজীপুর)প্রতিনিধি  ০২ জুন ২০২০, ১২:২৭:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুর মহানগরীর পূবাইল মেট্রো থানা এলাকার সাংবাদিক দাবিদার দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি ও ধর্ষণ মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন থানা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি অপু মন্ডল ও ৪২ নং ওয়ার্ড মহিলা লীগ যুগ্ম আহবায়ক স্বীকৃতি রানী মন্ডল।

শনিবার সকালে এই দুই নেতা কুদাব মাতৃকোল বিদ্যানিকেতন স্কুল ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলন করে দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।অভিযুক্ত সাংবাদিকরা হলেন-আল আমিন সরকার ও সামসুদ্দিন জুয়েল।

অপু মন্ডলের অভিযোগ, আলআমিন ও সামসুদ্দিন তার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছে। টাকা না দেয়ায় মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছে।এতেও তারা ক্ষান্ত হয়নি তাকে ধর্ষণ মামলায় ফাঁসানোর অপচেষ্টাও করেছে।পদ হারবাইদ এলাকার এক ধর্ষণ মামলায় আমার নাম না থাকলেও আমার নাম জড়িয়ে সংবাদ করা হয়েছে।

অপু মন্ডল জানান, তিনি বিষয়টি স্থানীয় এমপি মেহের আফরোজ চুমকি,গাজীপুর সিটির সাবেক প্যানেল মেয়র ও গাজীপুর মহানগর আওলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হোসনে আরা সিদ্দিকি জুলি,পূবাইল থানা ছাত্রলীগ সভাপতি গোলজার হোসেন টুটুল ও পূবাইল প্রেসক্লাবকে জানিয়েছেন।

এসব অভিযোগের ভিত্তিতে এবং দীর্ঘদিন ধরে সংশ্লিষ্ট পত্রিকার কার্ডধারী সাংবাদিক হিসেবে নিয়োগপত্র জমা না দেয়ায় ওই দুই সাংবাদিককে পূবাইল প্রেসক্লাব থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটির সাবেক প্যানেল মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হোসনে আরা সিদ্দিকি জুলি বলেন,ঘটনার দিন রাতে ভিকটিমের অভিযোগ অনুযায়ী ৫ জনকে আসামি করে থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে। তিন জন আটক করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পূবাইল থানা পুলিশ।মামলার পর দিন থেকেই বিভিন্ন ভাবে মামলার ভয় ভীতি দেখিয়ে অপুর মা স্বীকৃতি রানী মন্ডল ও অপুর কাছে কথিত সাংবাদিক আল আমিন ও সামসুদ্দিন জুয়েল টাকা দাবি করে আসছিল বলে জেনেছি।

এ বিষয়ে পূবাইল থানা ছাত্রলীগ সভাপতি গোলজার জানান-কতিপয় সাংবাদিক ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে নিউজ না করার জন্য অপুর কাছ থেকে টাকা দাবি করে আসছে।ছাত্রলীগের ভাবমুর্তি নষ্ট করার জন্য চাঁদাবাজ নামধারী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়া হবে। তাদের আইনের আওতায় না আনা পর্যন্ত কর্মসুচি দেয়া হবে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পূবাইল থানার সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) সাইফুল ইসলাম জানান, ভিকটিমকে ফোন করে কতিপয় সাংবাদিক উল্টা-পাল্টা কিছু বলানোর চেষ্টা করছে বলে ভিকটিম আমাকে ফোনে জানিয়েছে।চাঁদা দাবির কথা আমাকেও জানিয়েছিল অপু মন্ডলের পরিবার।

ভিকটিমের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান-আমি বাদী হয়ে জড়িত ৫ জনের নাম উল্লেখ করে ধর্ষণ মামলা করেছি।

পূবাইল থানার ওসি নাজমুল হক ভূইয়া জানান-কে দোষী কে নির্দোষ তা তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত বলা যাবে না। নিউজ না করার জন্য ৫০ হাজার টাকা চেয়েছে সেটা আমার সামনে অপু মণ্ডলের মা ওই সাংবাদিকদের সামনেই বলেছে। চাঁদা দাবির বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত