হামাগুঁড়ি দিয়েই স্বপ্ন জয় করল আজহারুল
jugantor
হামাগুঁড়ি দিয়েই স্বপ্ন জয় করল আজহারুল

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

০২ জুন ২০২০, ২২:৪৮:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

জন্ম থেকেই দুই পা উল্টো সরু ও বাঁকা। তবুও স্বপ্ন জয়ে বিভোর। শত বাধা উপেক্ষা করে হামাগুঁড়ি দিয়ে এবার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এসএসসি পাস করল প্রতিবন্ধী আজহারুল।

সে বালালী বাঘমারা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ২.৮৯ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। তবে আরও ভালো ফলাফল করার ইচ্ছা ছিল তার। এখন সে স্বপ্ন দেখছে ভালো কলেজে লেখাপড়া করে সরকারি ভালো একটি চাকরি করার।

আজহারুলের বাড়ি নেত্রকোনার মদন উপজেলার বনতিয়শ্রী গ্রামে। আজহারুলের রয়েছে তিন ভাই, তিন বোন। ভাই-বোনদের মধ্যে পাঁচ নম্বর আজহারুল। অভাবী সংসারে প্রতিবন্ধী হয়ে জন্ম নেয়া আজহারুল ছোটবেলা থেকেই সমাজের মানুষের অবহেলা আর হোঁচট খেয়ে বড় হয়েছে। তার দুই হাতও বাঁকা।

এরপরও দুই হাতের ওপর ভর করে স্বপ্ন জয়ের পথে এগিয়ে চলছে আজহারুল ইসলাম। অদম্য ইচ্ছা আর স্বপ্ন জয়ের দারুণ আগ্রহ রয়েছে তার।

তার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার বলেন, আজহারুল পাস করায় আমরা খুবই খুশি। আজহারুল একজন মেধাবী ছাত্র, আর্থিক সমস্যার কারণে ওকে প্রতিদিন হামাগুঁড়ি দিয়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা আসতে হয়েছে। আমি চাই বিত্তবানরা যেন ওকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ওয়ালীউল হাসান বলেন, আজহারুল এসএসসি পাস করেছে শোনে খুবই খুশি হলাম। তাকে সরকারি সহযোগিতা দেয়া হয়েছিল। আরও দেয়া হবে। আমরা তার পরিবারের খোঁজ-খবর নিচ্ছি। পড়াশোনার খরচের সমস্যা হলে উপজেলা প্রশাসন ব্যবস্থা করবে।

হামাগুঁড়ি দিয়েই স্বপ্ন জয় করল আজহারুল

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  
০২ জুন ২০২০, ১০:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জন্ম থেকেই দুই পা উল্টো সরু ও বাঁকা। তবুও স্বপ্ন জয়ে বিভোর। শত বাধা উপেক্ষা করে হামাগুঁড়ি দিয়ে এবার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এসএসসি পাস করল প্রতিবন্ধী আজহারুল।  

সে বালালী বাঘমারা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ২.৮৯ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। তবে আরও ভালো ফলাফল করার ইচ্ছা ছিল তার। এখন সে স্বপ্ন দেখছে ভালো কলেজে লেখাপড়া করে সরকারি ভালো একটি চাকরি করার।  

আজহারুলের বাড়ি নেত্রকোনার মদন উপজেলার বনতিয়শ্রী গ্রামে।  আজহারুলের রয়েছে তিন ভাই, তিন বোন। ভাই-বোনদের মধ্যে পাঁচ নম্বর আজহারুল। অভাবী সংসারে প্রতিবন্ধী হয়ে জন্ম নেয়া আজহারুল ছোটবেলা থেকেই সমাজের মানুষের অবহেলা আর হোঁচট খেয়ে বড় হয়েছে। তার দুই হাতও বাঁকা। 

এরপরও দুই হাতের ওপর ভর করে স্বপ্ন জয়ের পথে এগিয়ে চলছে আজহারুল ইসলাম। অদম্য ইচ্ছা আর স্বপ্ন জয়ের দারুণ আগ্রহ রয়েছে তার।
 
তার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার বলেন,  আজহারুল পাস করায় আমরা খুবই খুশি। আজহারুল একজন মেধাবী ছাত্র, আর্থিক সমস্যার কারণে ওকে প্রতিদিন হামাগুঁড়ি দিয়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা আসতে হয়েছে। আমি চাই বিত্তবানরা যেন ওকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ওয়ালীউল হাসান বলেন, আজহারুল এসএসসি পাস করেছে শোনে খুবই খুশি হলাম। তাকে সরকারি সহযোগিতা দেয়া হয়েছিল। আরও দেয়া হবে। আমরা তার পরিবারের খোঁজ-খবর নিচ্ছি। পড়াশোনার খরচের সমস্যা হলে উপজেলা প্রশাসন ব্যবস্থা করবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন