মোবাইল ফোনে গালি দেয়ার অভিযোগে ৭ জনকে কুপিয়ে জখম

  সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি ০৩ জুন ২০২০, ০৪:৪২:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

হামলায় আহতদের একাংশ। ছবি-যুগান্তর

ফেনীর সোনাগাজীতে তিনমাস আগে মোবাইল ফোনে গালি দেয়ার অভিযোগ এনে ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ৭জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষ।

আহতরা হলেন - মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের হোসেন আলী জমাদার বাড়ির আবদুর রবের ছেলে আবুল কালাম, তার ছেলে মারুফ হোসেন শাকিল, মাহবুল হকের ছেলে কামাল উদ্দিন, মো. নূরনবীর ছেলে নূরুজ্জামান, আবুল হোসেনের ছেলে মো. শিপন, মো. এয়াছিন ও আবদুল মালেকের ছেলে বাহার উদ্দিন।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের কুদ্দুস মিয়ার বাজারে জাহাঙ্গীর হার্ডওয়ার দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও আহতরা জানান, মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের নূরুজ্জামানের বিরুদ্ধে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের স্বরাজপুর গ্রামের জনৈক আজাদকে তিনমাস পূর্বে মোবাইলে গালি দেয়ার অভিযোগ তুলেন ওই এলাকার রায়হান শিকদার ও জামশেদ আলম।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পাঁচজন সন্ত্রাসী দিয়ে নূরুজ্জামানকে অপহরণ করে স্বরাজপুর গ্রামের একটি স্কুলে নিয়ে যায় রায়হান শিকদার ও জামশেদ আলম। সেখানে একটি কক্ষে তাকে শারীরিক নির্যাতন চালায় তারা। আজাদকে গালি দিয়েছে মর্মে জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি আদায় করে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে দুপুরে তাকে ছেড়ে দেয় ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা।

একইদিন বিকাল ৪টার দিকে আজাদ কুদ্দুস মিয়ার বাজারে গেলে নূরুজ্জামানের স্বজনরা তাকে আটক করে মারধর শুরু করে।

বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে মোবাইল ফোনে জানতে পেরে আজাদকে তাৎক্ষণিক ছেড়ে দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন মঙ্গলকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদল।

হোসেন আলী জমাদার বাড়ির লোকজন তাকে চেয়ারম্যানের নির্দেশ মোতাবেক তাৎক্ষণিক ছেড়ে দেন।

আজাদকে মারধরের ঘটনা জানতে পেরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের স্বরাজপুর, আমিরাবাদ ইউনিয়নের পশ্চিম আহম্মদপুর গ্রামের চিহ্নিত সন্ত্রাসী রায়হান শিকদার, জামশেদ আলম, বধু ড্রাইভার বাড়ির সোহাগ, রুহুল আমিনের ছেলে রিফাত, নূর ইসলামের ছেলে রনি, আজাদ, সিরাজ মিস্ত্রির ছেলে মো. শরিফ, মো. শাহাদাত হোসেন, বাবু, ফকির আহম্মদের ছেলে জসিম উদ্দিন, আহম্মদপুর গ্রামের নূরুর জামানের ছেলে বাবু, আহম্মদ করিমের ছেলে জামশেদ আলম, উত্তর মঙ্গলকান্দি গ্রামের এমরান হোসেন রানা, নূরনবীর ছেলে মোহাম্মদ মিয়া ও এনাম সরকারের ছেলে আবু হানিফ বাবু সহ ২০-২৫জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী কুদ্দুস মিয়ার বাজারে গিয়ে অতর্কিত হামলা করে।

এ সময় সন্ত্রাসীরা আবুল কালাম, তার ছেলে মারুফ হোসেন শাকিল, মাহবুল হকের ছেলে কামাল উদ্দিন, আবুল হোসেনের ছেলে মো. শিপন, মো. এয়াছিন ও আবদুল মালেকের ছেলে বাহার উদ্দিন কে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে।

এ ব্যাপারে নূরুজ্জামান বাদী হয়ে ১৫জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৫-৬ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম ও মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত