বগুড়ায় খালের বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনে আগুন
jugantor
বগুড়ায় খালের বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনে আগুন

  বগুড়া ব্যুরো  

০৩ জুন ২০২০, ২৩:২৭:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার শাজাহানপুরে খালে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অর্ধ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। এ সময় দুটি ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

বুধবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা পারভীনের নেতৃত্বে আদালত উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের শৈলধুকরী গ্রামের লোহার ব্রিজ সংলগ্ন খালে এ অভিযান চালান। এতে এলাকাবাসীদের মাঝে স্বস্তি দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, শাজাহানপুর উপজেলার শৈলধুকরী গ্রামে লোহার ব্রিজ দিয়ে শুধু এ উপজেলা নয় পার্শ্ববর্তী ধুনট উপজেলার বিপুল সংখ্যক মানুষ ও যানবাহন চলাচল করেন। ওই গ্রামের মৃত কছিম উদ্দিনের ছেলে আবদুল করিম ওরফে খোকা মাস্টার ব্রিজ সংলগ্ন খালে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করে আসছেন। এতে খালের পাড়ে ভাঙন দেখা দেয় এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্রিজটি হুমকির মুখে পড়ে। এ ঘটনায় আশপাশের সচেতন মানুষের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

এদিকে শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা পারভীনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার বিকালে শৈলধুকরী গ্রামের লোহার ব্রিজ সংলগ্ন খালের বালু পয়েন্টে অভিযান চালান। খোকা মাস্টার ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করলে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া তার দুটি ড্রেজার মেশিন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়।

শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা পারভীন জানান, বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অবৈধ এসব ব্যবসায়ীদের ছাড় দেয়া হবে না।

বগুড়ায় খালের বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনে আগুন

 বগুড়া ব্যুরো 
০৩ জুন ২০২০, ১১:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার শাজাহানপুরে খালে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অর্ধ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। এ সময় দুটি ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

বুধবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা পারভীনের নেতৃত্বে আদালত উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের শৈলধুকরী গ্রামের লোহার ব্রিজ সংলগ্ন খালে এ অভিযান চালান। এতে এলাকাবাসীদের মাঝে স্বস্তি দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, শাজাহানপুর উপজেলার শৈলধুকরী গ্রামে লোহার ব্রিজ দিয়ে শুধু এ উপজেলা নয় পার্শ্ববর্তী ধুনট উপজেলার বিপুল সংখ্যক মানুষ ও যানবাহন চলাচল করেন। ওই গ্রামের মৃত কছিম উদ্দিনের ছেলে আবদুল করিম ওরফে খোকা মাস্টার ব্রিজ সংলগ্ন খালে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করে আসছেন। এতে খালের পাড়ে ভাঙন দেখা দেয় এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্রিজটি হুমকির মুখে পড়ে। এ ঘটনায় আশপাশের সচেতন মানুষের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

এদিকে শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা পারভীনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার বিকালে শৈলধুকরী গ্রামের লোহার ব্রিজ সংলগ্ন খালের বালু পয়েন্টে অভিযান চালান। খোকা মাস্টার ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করলে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া তার দুটি ড্রেজার মেশিন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়।

শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা পারভীন জানান, বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অবৈধ এসব ব্যবসায়ীদের ছাড় দেয়া হবে না।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন