৭৪ দিন পর হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুরু

  দিনাজপুর প্রতিনিধি ০৮ জুন ২০২০, ২১:০৭:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘ ৭৪ দিন বন্ধ থাকার পর দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম সোমবার থেকে আবার চালু হয়েছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর সোমবার সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাক।

শনিবার থেকে এই আমদানি-রফতানি কার্যক্রম চালু হওয়ার কথা থাকলেও ভারতে জটিলতার কারণে সিদ্ধান্ত নেয়ার দুদিন পর আমদানি-রফতানি কার্যক্রম শুরু হলো দেশের অন্যতম বৃহত্তম এই স্থলবন্দর দিয়ে।

গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় ভারত থেকে পণ্য বোঝাই একটি ট্রাকে জিরা নিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশের হিলি বন্দরে প্রবেশের মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রম চালু হয়। এরপর একে একে ভারত থেকে প্রবেশ করে পণ্যবাহী ৪০টি ট্রাক ও বাংলাদেশ থেকে ভারতে যায় পণ্যবাহী ৬টি ট্রাক। এরই মাধ্যমে ৭৪ দিন বন্ধ থাকার পর এই স্থলবন্দর দিয়ে আবারও শুরু হলো দু’দেশের বাণিজ্য।

বন্দর পরিচালনাকারী বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন প্রতাপ মল্লিক জানান, বাংলাদেশ ও ভারতের আমদানি-রফতানীকারকদের মধ্যে কয়েক দফা বৈঠক ও চিঠি আদান-প্রদানের পর সকল প্রকার স্বাস্থ্যবিধি মেনে সোমবার সকাল থেকে দুই দেশের মাঝে এই বন্দর দিয়ে বাণিজ্য কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

তিনি জানান, প্রথম দিন সোমবার ভারত থেকে জিরা, বাদাম, পেঁয়াজ ও ঘাসের বীজবাহী ৪০টি ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এছাড়াও ভোজ্য তেল ও চিটাগুড়বাহী ৬টি ট্রাক বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশ করেছে।

এদিকে দীর্ঘদিন পর আমদানি-রফতানি কার্যক্রম চালু হওয়ায় কর্মহীন হিলি বন্দরের শ্রমিকদের মধ্যে আবার ফিরে এসেছে কর্মচাঞ্চল্য। দীর্ঘ দিন থেকে আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকায় শ্রমিকরা মানবেতর জীবনযাপন করছিল। আমদানিকারকরাও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে আমদানি-রফতানি চালু হওয়ায়।

হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী শাহিনুর রেজা শাহিন বলেন, গত শনিবার থেকে হিলি বন্দর দিয়ে আমদানি রফতানি চালু হওয়ার কথা থাকলেও ভারতে জটিলতার কারণে দুদিন পর সোমবার সকাল থেকে আমদানি রফতানি শুরু হলো। জিরো পয়েন্ট থেকেই সরকারি সামাজিক দূরত্বসহ সব নিয়ম কানুন মেনেই আমদানি করা হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত