একসঙ্গে আত্মহত্যা করলেন নিঃসন্তান দম্পতি
jugantor
একসঙ্গে আত্মহত্যা করলেন নিঃসন্তান দম্পতি

  ফরিদপুর ব্যুরো  

২৪ জুন ২০২০, ২৩:০৮:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে রাকিব মোল্যা ও ইভা বেগম নামে এক নিঃসন্তান দম্পতি একসঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। উপজেলার শেখর ইউনিয়নের দরি সহস্রাইল গ্রামে বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দাম্পত্য হতাশার জের ধরে বসতঘরের আড়ায় গলায় ফাঁস নেয় ওই দম্পতি। বিষয়টি টের পেয়ে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

শেখর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইস্রাফিল মোল্যা বলেন, রাকিবের সঙ্গে বোয়ালমারী পৌর সদরের দক্ষিণ কামারগ্রামের ইকরাম মৃধার মেয়ে ইভার প্রায় তিন বছর আগে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তারা নিঃসন্তান ছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে হতাশা ছিল। এই হতাশার কারণে তারা আত্মহত্যা করতে পারে। রাকিব জাহাজে চাকরি করত, সম্প্রতি করোনাভাইরাসের কারণে বাড়িতে এসে রাজমিস্ত্রীর কাজ করছিল সে।

বোয়ালমারী থানার ওসি আমিনুর রহমান বলেন, এক দম্পতির আত্মহত্যার কথা শুনেছি। বর্তমানে মৃতদেহ আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। ওই দম্পতি আমার প্রশাসনিক এলাকার বাসিন্দা হলেও আলফাডাঙ্গায় মারা যাওয়ায় আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নিবে।

একসঙ্গে আত্মহত্যা করলেন নিঃসন্তান দম্পতি

 ফরিদপুর ব্যুরো 
২৪ জুন ২০২০, ১১:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে রাকিব মোল্যা ও ইভা বেগম নামে এক নিঃসন্তান দম্পতি একসঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। উপজেলার শেখর ইউনিয়নের দরি সহস্রাইল গ্রামে বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দাম্পত্য হতাশার জের ধরে বসতঘরের আড়ায় গলায় ফাঁস নেয় ওই দম্পতি। বিষয়টি টের পেয়ে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

শেখর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইস্রাফিল মোল্যা বলেন, রাকিবের সঙ্গে বোয়ালমারী পৌর সদরের দক্ষিণ কামারগ্রামের ইকরাম মৃধার মেয়ে ইভার প্রায় তিন বছর আগে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তারা নিঃসন্তান ছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে হতাশা ছিল। এই হতাশার কারণে তারা আত্মহত্যা করতে পারে। রাকিব জাহাজে চাকরি করত, সম্প্রতি করোনাভাইরাসের কারণে বাড়িতে এসে রাজমিস্ত্রীর কাজ করছিল সে।

বোয়ালমারী থানার ওসি আমিনুর রহমান বলেন, এক দম্পতির আত্মহত্যার কথা শুনেছি। বর্তমানে মৃতদেহ আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। ওই দম্পতি আমার প্রশাসনিক এলাকার বাসিন্দা হলেও আলফাডাঙ্গায় মারা যাওয়ায় আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নিবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন