ঢাবি ছাত্রী সুমাইয়া হত্যা মামলায় স্বামী-শ্বশুর গ্রেফতার

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৫ জুন ২০২০, ১৬:০৭:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী সুমাইয়া বেগম হত্যা মামলার প্রধান আসামি তার স্বামী মোস্তাক হোসাইন(৩২) ও শ্বশুর জাকির হোসাইনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে আসামিদের একজনকে বগুড়া থেকে, অপরজনকে রাজশাহীর বাঘা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার অপর দুই আসামি সুমাইয়ার শাশুড়ি ও ননদকে আগেই গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত রোববার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের ছাত্রী সুমাইয়া বেগমের লাশ তার স্বামীর বাড়ি নাটোর শহরের হরিশপুর বাগানপাড়া থেকে উদ্ধার করা হয়।

‘সোমবার রাতে এ ঘটনায় সুমাইয়ার মা বাদী হয়ে সদর থানায় হত্যা মামলা করেন। ওই রাতেই তার শাশুড়ি ও ননদকে গ্রেফতার করা হয়।’

তিনি বলেন, ওই সময় তার স্বামী ও শ্বশুর গা ঢাকা দেন। তাদের ধরতে জেলা পুলিশ আটটি দল গঠন করে।

‘গতকাল বুধবার রাতে আটটি দল দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। শেষ পর্যন্ত আজ সকালে তার স্বামী মোস্তাক হোসাইনকে রাজশাহীর সীমান্তবর্তী বাঘা উপজেলা থেকে এবং শ্বশুর জাকির হোসাইনকে বগুড়ার নন্দীগ্রাম থেকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়।’

এই পুলিশ সুপার বলেন, তাদের প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রয়োজনে রিমান্ডে নিয়ে অতিরিক্ত জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার ছাড়াও পিবিআই বগুড়ার পুলিশ সুপার আকরাম হোসেন, নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল মতিন উপস্থিত ছিলেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত