বান্দরবানের রেড জোনে ঢিলেঢালা প্রথম দিনের লকডাউন

  বান্দরবান প্রতিনিধি ২৫ জুন ২০২০, ২২:০০:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

করোনা সংক্রমণ রোধে বান্দরবান জেলাকে রেড, ইয়েলো ও গ্রিন তিনটি ভাগে জোন ঘোষণা করে ২১ দিনের লকডাউন শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রথমদিনে রেড জোন বান্দরবান ও লামা দুটি পৌরসভায় লকডাউন চলেছে ঢিলেঢালা। প্রশাসন-আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো কঠোরতা চোখে পড়েনি। হাট-বাজারের সব দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও রাস্তা-ঘাটে এবং পাড়া-মহল্লাগুলোতে অকারণেই মানুষদের ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে।

গণপরিবহন চলাচল বন্ধ থাকলেও ব্যক্তিগত যানবাহন মোটরসাইকেল, গাড়ি চলাচল করেছে পৌর শহরের যত্রতত্র। কোনোভাবেই লকডাউন মানছে না সাধারণ মানুষ। তবে হাট-বাজার এবং পাড়া-মহল্লাগুলোতে আড্ডা বন্ধে সেনাবাহিনীর সদস্যরা টহল দিয়ে মাইকিং করে লোকজনদের ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

অপরদিকে ঘোষিত ইয়েলো জোন আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি এবং গ্রীন জোন রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি ও সদর উপজেলায়ও লকডাউনের প্রথমদিনে কোনো কঠোরতা ছিল না বলে খবর পাওয়া গেছে। এ দিকে বুধবার রাতে পৌর শহরে মাইকিং করে হাট-বাজারের সব দোকানপাট এবং যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে ঘোষণা দেয়া হলেও পাহাড়ি জনপদের গ্রামঞ্চলের কৃষক-চাষীদের কানে তথ্যটি পৌঁছায়নি।

যে কারণে পূর্বের নিয়মনুসারে কৃষিপণ্য নিয়ে ভোর থেকে হাট-বাজারে ভিড় জমান কৃষকেরা। কিন্তু লকডাউনের কারণে হাট-বাজারে বসতে না দেয়ায় কৃষকরা কৃষিপণ্য নিয়ে বিপাকে পড়েন। অনেকে রাজারমাঠে কৃষিপণ্য ফেলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যান। অনেকে সাঙ্গু নদীর চরে বসে কোনো রকম বেচা-বিক্রি করে নদীপথে গ্রামে ফিরেছেন।

বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. শামীম হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে আগামী ২১ দিনের জন্য লকডাউন শুরু হয়েছে। লকডাউন কার্যকরে কঠোরভাবে মাঠে নেমেছে প্রশাসন-আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

রেড জোনে নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সব ধরনের যানবাহন এবং দোকানপাট বন্ধ থাকবে। পাড়া-মহল্লায় ভ্যানে-গাড়িতে করে ভ্রাম্যমাণ বাজারে সবজি, মাছ-মাংস বিক্রি করা হবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র অনলাইনে হোম ডেলিভারী সার্ভিস থেকে সংগ্রহ করা যাবে।

বান্দরবান সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা জানান, সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউনের কোনো বিকল্প নেই। বান্দরবান জেলাকে রেড, ইয়েলো এবং গ্রিন তিনটি ক্যাটাগরিতে জোন ঘোষণা করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত