নদী থেকে বালু উত্তোলন, তাহিরপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে জরিমানা

  যুগান্তর রিপোর্ট, তাহিরপুর ২৫ জুন ২০২০, ২৩:০০:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে সাবেক ইউপি সদস্য গোলাম কিবরিয়া ওরফে কিবরিয়া মেম্বারের নিকট হতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অর্ধলক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করেছেন।

নদীরচর হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অনুমতি ও বালু বিক্রির অপরাধ আমলে নিয়ে বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাবেক ওই ইউপি সদস্যকে জরিমানা প্রদানের আদেশ প্রদান করেন।

কিবরিয়া উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের মধুয়ারচর গ্রামের লাল মাহমুদের ছেলে ও ওই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, সরকারি কাজে বালু নেয়ার অজুহাত দেখিয়ে প্রতারণামূলকভাবে গত প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন কয়েকশতাধিক শ্রমিককে উপজেলার মাহারাম নদীরচর হতে বালু উত্তোলনের অনুমতি প্রদান এবং একাধিক ব্যবসায়ীর নিকট বালু বিক্রি করে আসছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য কিবরিয়া।

বিষয়টি জানতে পেরে বুধবার মাহারাম নদীতে বালু উত্তোলনরত অবস্থায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বালু বোঝাই চারটি নৌকা আটক করা হয়।

পরবর্তীকালে বালুবোঝাই নৌকাগুলো ছাড়িয়ে নিতে তদবীর,বালু উত্তোলন, বালু বিক্রিতে নিজের দায় স্বীকার করলে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পদ্মাসন সিংহ ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কিবরিয়াকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সাবেক ইউপি সদস্য কিবরিয়া যুগান্তরকে জানান, আমার বালুবোঝাই এক নৌকার সাড়ে ১২ হাজার ও বাদাঘাট মক্কা টওয়ারের মালিক মাটিকাটার কয়লা ব্যবসায়ী আব্দুল কুদ্দুছের বালুবোঝাই তিন নৌকার ৩৭ হাজার ৫শ' টাকাসহ মোট ৫০ হাজার টাকা ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা পরিশোধ করে নৌকাগুলো ছাড়িয়ে এনেছি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পদ্মাসন সিংহ এ তথ্য যুগান্তরকে নিশ্চিত করে বলেন,বালু উত্তোলনে জেলা বা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে সীমান্তনদী মাহারাম বালু মহাল হিসেবে কাউকে ইজারা প্রদান করায় হয়নি।

আটককৃত চারটি নৌকায় কত ঘনফুট বালু ছিল,বালুসহ চারটি নৌকার মূল্য কত, জব্দমূলে বালু নৌকাসহ অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অনুমতি এবং বালু বিক্রির ব্যাপারে ভ্রাম্যমাণ আদালদ কর্তৃক অর্থদণ্ড আদায়ের পরিবর্তে নিয়মিত মামলা রুজুর আইনি বাধ্যবাধকতা ছিল কি না?

এ সব বিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও বলেন, এ বিষয়ে এতটা গভীরে খতিয়ে দেখিনি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত