চেক জালিয়াতির মামলায় ভোলা বিএনপির সভাপতির জামিন

  যুগান্তর ডেস্ক ২৭ মার্চ ২০১৮, ১৯:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

ভোলা
ভোলা জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী অালমগীর (ফাইল ছবি)।

ভোলা জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর চেক জালিয়াতির পৃথক তিনটি মামলায় জামিন পেয়েছেন। দীর্ঘ রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা না হলেও অর্থ কেলেংকারির চারের অধিক মামলা হওয়ায় ভোলার রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্ব-শরীরে হাজির হলে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে চলতি বছর তার বিরুদ্ধে সাড়ে ২৫ লাখ টাকার চেক জালিয়াতির অভিযোগে দুই ব্যবসায়ী আদালতে পৃথক তিনটি মামলা করেন।

সদর উপজেলার জামিরালতা গ্রামের ব্যবসায়ী মহিউদ্দিন সিকদার ৮ লাখ টাকা ও ব্যবসায়ী জহির রায়হান পৃথক দুটি চেকে ১০ লাখ এবং সাড়ে ৭ লাখ টাকার চেক জালিয়াতির মামলা করেন।

মামলার বাদী সদর উপজেলার জামিরালতা গ্রামের মহিউদ্দিন সিকদার জানান, জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর তার পৈত্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এ. রহমান এন্ড সন্স কোম্পানির ব্যবসার লাভের একটি অংশ (শেয়ার) দেয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে ২ জুন ২০১৭ তারিখে নগদ ৮ লাখ টাকা নিয়েছেন। পরবর্তীতে লভ্যাংশ দিতে গরিমসি করায় টাকা ফেরত চাইলে গত ২০ আগস্ট ১৭ তারিখে ভোলা ন্যাশনাল ব্যাংকের ৮ লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করেন। কিন্তু ওই অ্যাকাউন্টে টাকা না থাকায় চলতি বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ভোলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গোলাম নবী আলমগীরের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির মামলা দায়ের করেন।

এদিকে একই এলাকার জহির রায়হানের কাছ থেকেও এ. রহমান অ্যান্ড সন্সের শেয়ার দেয়ার কথা বলে গোলাম নবী আলমগীর গত বছরের ৪ জুন ১৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা নিয়েছেন। কিন্তু তাকেও কোনো লভ্যাংশ দেননি। এক পর্যায়ে টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলে ভোলা পূবালী ব্যাংকের ১০ লাখ টাকা এবং ন্যাশনাল ব্যাংক ভোলা শাখার সাড়ে ৭ লাখ টাকার পৃথক দুটি চেক দেন। ওই দুটি চেকেও টাকা তুলতে না পেরে জহির রায়হান গোলাম নবী আলমগীরের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি চেক জালিয়াতির মামলা দায়ের করেন।

বাদী পক্ষের অ্যাডভোকেট গোলাম মোর্শেদ জানান, এ. রহমান অ্যান্ড সন্সের ম্যানেজিং পার্টনার গোলাম নবী আলমগীর সাড়ে ২৫ লাখ টাকার চেক জালিয়াতির ৩টি পৃথক মামলায় হাজির হলে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

আসামি পক্ষের অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান জানান, চেক সংক্রান্ত জামিনযোগ্য ধারার মামলায় আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হলে আদালত জামিন মঞ্জুর করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×