পানির বদলে দিল এসিড, প্রাণ গেল শিশুর

  বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ০১ জুলাই ২০২০, ১৮:৪৪:১২ | অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে স্বর্ণের দোকানের এসিড পান করে মোনতাহুল জান্নাত সাবা (৫) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার নবাবগঞ্জ উপজেলা শহরের ‘সোমা জুয়েলার্স’ নামের স্বর্ণের দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ওই স্বর্ণের দোকান মালিক সাইফুল ইসলামকে (৪০) আটক করেছে থানা পুলিশ। নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শিশু মোনতাহুল জান্নাত সাবা উপজেলার বিনোদনগর নন্দনপুর গ্রামের শাহাজুল ইসলামের মেয়ে। আটক সাইফুল ইসলাম উপজেলার রামপুর এলাকার সবুজার রহমানের ছেলে।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান যুগান্তরকে বলেন, ‘বুধবার সকালে মেয়ে মোনতাহুল জান্নাত সাবাকে নিয়ে উপজেলা শহরের ওই স্বর্ণের দোকানে মোর্শেদা বেগম গহনা তৈরি করতে যান। সেখানে ক্ষুধা পেলে শিশুটি মায়ের কাছে বিস্কুট খেতে চায়। পরে পানি খেতে চাইলে মালিক সাইফুল ইসলাম দোকানের কর্মচারীকে পানি দিতে বলেন। কোনো কারণে পানির বদলে বোতলে থাকা স্বর্ণ পরিষ্কার করা এসিড খেতে দেয়। এই এসিড খেয়ে শিশুটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর শিশুটি মারা যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শাহাজাহান আলী যুগান্তরকে বলেন, ‘অসুস্থ শিশুটিকে নিয়ে তার মা মোর্শেদা বেগম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিলেন। প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার আগেই শিশুটি মারা গেছে। তবে শিশুটি মায়ের বর্ণনা অনুযায়ী সে পানির পরিবর্তে স্বর্ণের দোকানের এসিড পান করে তাই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে।’

ওসি অশোক কুমার চৌহান যুগান্তরকে বলেন, এ ঘটনায় দোকানের মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে।

বিরামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মিথুন সরকার যুগান্তরকে বলেন, শিশুটির মৃত্যুর ঘটনায় দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে ওই জুয়েলার্সের মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত