নাগরপুরে প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে জখম, দোকানপাট ভাংচুর
jugantor
নাগরপুরে প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে জখম, দোকানপাট ভাংচুর

  নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

০২ জুলাই ২০২০, ১৮:৫৫:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাগল নিয়ে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে টাঙ্গাইলের নাগরপুরে জয়নাল মিয়া (৩২) নামের এক প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। একই সঙ্গে দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় তার ছোট বোন শেফালী আক্তার (১২) আহত হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের ধুনাইল গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে আহত প্রতিবন্ধীর ছোট ভাই শুকুর আলী বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় ৬ জনকে আসামি করে অভিযোগ দেন।

অভিযোগ সূত্রে জানান যায়, উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের ধুনাইল পূর্বপাড়া গ্রামের রূপচান মিয়ার শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলে জয়নাল নিজ বাড়িতে কাপড় ও মুদি দোকান করে আসছিল। বুধবার সন্ধ্যায় ছাগল নিয়ে একই গ্রামের মো. আলমগীরের ছেলে মো. তানজিদের (১৯) কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে তানজিদের পরিবারের লোকজন এসে প্রতিবন্ধী জয়নালের দোকানে হামলা করে। এতে জয়নাল ও তার ছোট বোন শেফালী আহত হয়। হামলাকারীরা দোকানের আসবাবপত্র ও মালামাল ভাংচুর করে। পরে স্বজন ও প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী চান্দু মিয়া জানান, মাগরিব নামাজের আগে তানজিদকে চাপাতি ও ছুরি নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে।

জয়নাল মিয়া জানান, হামলাকারীদের হামলায় কমপক্ষে ৩ লাখ টাকার মালামাল নষ্ট হয়েছে।

নাগরপুর থানার ওসি আলম চাঁদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নাগরপুরে প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে জখম, দোকানপাট ভাংচুর

 নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
০২ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাগল নিয়ে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে টাঙ্গাইলের নাগরপুরে জয়নাল মিয়া (৩২) নামের এক প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। একই সঙ্গে দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় তার ছোট বোন শেফালী আক্তার (১২) আহত হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের ধুনাইল গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে আহত প্রতিবন্ধীর ছোট ভাই শুকুর আলী বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় ৬ জনকে আসামি করে অভিযোগ দেন।

অভিযোগ সূত্রে জানান যায়, উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের ধুনাইল পূর্বপাড়া গ্রামের রূপচান মিয়ার শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলে জয়নাল নিজ বাড়িতে কাপড় ও মুদি দোকান করে আসছিল। বুধবার সন্ধ্যায় ছাগল নিয়ে একই গ্রামের মো. আলমগীরের ছেলে মো. তানজিদের (১৯) কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে তানজিদের পরিবারের লোকজন এসে প্রতিবন্ধী জয়নালের দোকানে হামলা করে। এতে জয়নাল ও তার ছোট বোন শেফালী আহত হয়। হামলাকারীরা দোকানের আসবাবপত্র ও মালামাল ভাংচুর করে। পরে স্বজন ও প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী চান্দু মিয়া জানান, মাগরিব নামাজের আগে তানজিদকে চাপাতি ও ছুরি নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে।

জয়নাল মিয়া জানান, হামলাকারীদের হামলায় কমপক্ষে ৩ লাখ টাকার মালামাল নষ্ট হয়েছে।

নাগরপুর থানার ওসি আলম চাঁদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন