করোনায় আক্রান্ত হয়ে চেম্বারে রোগী দেখার ঘটনা তদন্তে কমিটি

  পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি ০৪ জুলাই ২০২০, ২২:১৬:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে তথ্য গোপন করে প্রাইভেট চেম্বারে রোগীর দেখার অভিযোগ উঠেছে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যাপক ও গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মাহামুদুর রহমানের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ দিকে এ ঘটনার পর পটুয়াখালীর সুশিল সমাজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই ডাক্তারের শাস্তি দাবি করেছেন। এ ঘটনার পর নোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টার লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যাপক ও গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মাহামুদুর রহমান তার প্রাইভেট চেম্বার নোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রোগী দেখেন। এ ঘটনা প্রকাশ হলে ডাক্তারের চেম্বারে গিয়ে প্রতিবাদ জানায় প্রতিবেশীরা। কিন্তু ডাক্তার মাহামুদুর রহমানের প্রতিবাদে সারা না দিয়ে রোগী দেখার কাজ চালিয়ে যান।

পরে এ ঘটনা বিভিন্ন মহল থেকে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগকে অবহিত করা হয়। পরে একরকম তোপের মুখে পড়ে ডাক্তার মাহামুদুর রহমান চেম্বার ত্যাগ করতে বাধ্য হন।

এ ঘটনায় পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডাক্তার গোলাম হোসেনকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় বলে নিশ্চিত করেছে সিভিল সার্জন ডাক্তার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন শিপন।

এ দিকে শনিবার জেলা প্রশাসন স্বাস্থ্য বিভাগ নোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টার লকডাউন ঘোষণা করে।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত ডাক্তার মাহামুদুর রহমান বলেন, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি শুক্রবার নিশ্চিত হয়েছি। এতে দোষের কিছু নয়। আমার দ্বারা কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হলে তার দায়ভার আমি নেব।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত