টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ যুবক নিহত, বিজিবির দাবি মাদকপাচারকারী
jugantor
টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ যুবক নিহত, বিজিবির দাবি মাদকপাচারকারী

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

০৬ জুলাই ২০২০, ০৮:১৯:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ যুবক নিহত, বিজিবির দাবি মাদক পাচারকারী

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- মোহাম্মদ আলম (২৬) ও মোহাম্মদ ইয়াসিন (২৪)।

রোববার রাত ১১টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের হোয়াবাং এলাকায় নাফ নদের তীরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত দুই যুবক মাদকপাচারকারী। এ সময় আহত হয়েছেন বিজিবির দুই সদস্য।

নিহত মোহাম্মদ আলম উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরের মোহাম্মদ শফির ছেলে ও মোহাম্মদ ইয়াসিন বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরের মোহাম্মদ এরশাদ আলীর ছেলে।

টেকনাফ-২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান জানান, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান পাচারের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যরা হোয়াবাং এলাকায় অবস্থান নেন।

এ সময় ২-৩ জন পাচারকারী নাফ নদ সাঁতরিয়ে ইয়াবার চালান নিয়ে অনুপ্রবেশের সময় বিজিবি সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করলে তারা পালাতে থাকেন। বিজিবি সদস্যরা তাদের পিছু ধাওয়া করলে পাচারকারীরা বিজিবির ওপর গুলিবর্ষণ করেন। এতে দুই বিজিবি সদস্য আহত হন।

বিজিবি সদস্যরাও জানমাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করেন। ৪-৫ মিনিট গুলিবিনিময়ের পর পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ দুই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় এক পাচারকারী পালিয়ে যান।

ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ যুবক নিহত, বিজিবির দাবি মাদকপাচারকারী

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
০৬ জুলাই ২০২০, ০৮:১৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ যুবক নিহত, বিজিবির দাবি মাদক পাচারকারী
ছবি: যুগান্তর

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই যুবক নিহত হয়েছেন।  নিহতরা হলেন- মোহাম্মদ আলম (২৬) ও মোহাম্মদ ইয়াসিন (২৪)।

রোববার রাত ১১টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের হোয়াবাং এলাকায় নাফ নদের তীরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত দুই যুবক মাদকপাচারকারী। এ সময় আহত হয়েছেন বিজিবির দুই সদস্য।

নিহত মোহাম্মদ আলম উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরের মোহাম্মদ শফির ছেলে ও মোহাম্মদ ইয়াসিন বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরের মোহাম্মদ এরশাদ আলীর ছেলে।  

টেকনাফ-২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান জানান, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান পাচারের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যরা হোয়াবাং এলাকায় অবস্থান নেন।

এ সময় ২-৩ জন পাচারকারী নাফ নদ সাঁতরিয়ে ইয়াবার চালান নিয়ে অনুপ্রবেশের সময় বিজিবি সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করলে তারা পালাতে থাকেন। বিজিবি সদস্যরা তাদের পিছু ধাওয়া করলে পাচারকারীরা বিজিবির ওপর গুলিবর্ষণ করেন। এতে দুই বিজিবি সদস্য আহত হন।

বিজিবি সদস্যরাও জানমাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করেন। ৪-৫ মিনিট গুলিবিনিময়ের পর পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ দুই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় এক পাচারকারী পালিয়ে যান।

ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন