লাউয়াছড়া উদ্যানের গাছ চুরির অভিযোগ সরকারি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে 

  শ্রীমঙ্গল ( মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ০৭ জুলাই ২০২০, ১৬:০৪:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের কয়েকটি গাছ বন বিভাগকে না জানিয়ে কেটে ফেলেছেন রেলওয়ের শ্রীমঙ্গল ডিভিশনের সিনিয়র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম ৷


জানা গেছে, গত শনিবার সকাল থেকে রেলওয়ের শ্রমিকরা লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভিতর ঢাকা-সিলেট রেললাইন রক্ষণাবেক্ষণেরর কাজ করছিলেন।

এক পর্যায়ে রেললাইনের পাশে থেকে দুটি বনাট ও চিকরাশি গাছ কেটে ফেলেন লাইনে কর্মরত শ্রমিকরা ৷


রেলওয়ের ওই প্রকৌশলীর নির্দেশেই গাছগুলো কেটে নেয়া হয়েছে বলে জানায় রেলওয়ে শ্রমিকরা ৷রোববার কাটা গাছগুলো একটি মালবাহী ট্রাকে করে শ্রীমঙ্গল রেলস্টেশনে নেয়া হয়৷


সেখান থেকে কিছু গাছ ও গাছের গুড়ি রেল স্টেশনের পাশের একটি স-মিলে নিয়ে রাখা হয়৷খবর পেয়ে মৌলভীবাজারের বন্য প্রাণি ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের রেঞ্জ অফিসার মোনায়েম হোসেন ও লাউয়াছড়ার বিট কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্ব শ্রীমঙ্গল রেল স্টেশন ও পার্শ্ববর্তী স-মিলে অভিযান চালিয়ে চিরানো কাটসহ গাছগুলো উদ্ধার করা হয়৷


এ ব্যাপারে রেলওয়ের সিনিয়র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম বলেন,শনিবার সকাল বেলা আমাদের রেলওয়ে শ্রমিকরা লাউয়াছড়া বনের ভিতর লাইনের রক্ষানাবেক্ষনের কাজ করছিলেন।


শুক্রবার রাতের প্রচুর বৃষ্টিপাতে দুটি গাছ লাইনের ওপর পড়ে গেলে শ্রমিকরা লাইন ক্লিয়ার করতে গাছগুলো কেটে ফেলে।

তিনি ফরেস্টের লোকজনকে বিষয়টি অবগত করেন বলে জানান। কিন্তু তারা তল্লাশির নামে আমাদের অনুমতি না নিয়ে রেলওয়ের সরকারি ঘরের তালা ভেঙে অবৈধ কাজ করেছেন বলে অভিযোগ করেন।


এ ব্যাপারে মৌলভীবাজারের বন্য প্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের রেঞ্জ অফিসার মোনায়েম হোসেন বলেন, রেলওয়ের নিরাপত্তার কাজের নাম করে রেলওয়ের সিনিয়র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম লাউয়াছড়া থেকে আমাদের না জানিয়ে গাছ চুরি করে নিয়ে এসেছেন৷ আমরা খবর পেয়ে রোববার ও সোমবার দুইদিনে গাছ ও চিরাই করা কাঠ উদ্ধার করেছি।

পুলিশের সহযোগীতায় তার বাসভবনের সামনে অভিযান পরিচালনা করে আরও গাছ উদ্ধার করেছি। আমরা এই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত