উলুঘাস কাটতে যাওয়ার পথে পদ্মায় নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৪

  পাবনা প্রতিনিধি ০৭ জুলাই ২০২০, ১৭:৪৭:১৪ | অনলাইন সংস্করণ

পদ্মা নদীতে উলু ঘাস (কাশফুল) কাটতে যাওয়ায় নৌকাডুবিতে ৪ কৃষক নিখোঁজ হয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পাবনা- কুষ্টিয়া জেলার সীমান্ত এলাকা পাবনা সদর উপজেলার চরসাদিপুর ইউনিয়নের চর ঘোষপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে পদ্মা নদীতে এ নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজরা হলেন- জুয়েল (৩৫), জাকির (৩২), শরিফুল (৩৫) ও জুবায়ের (৩৩)। এদের সবার বাড়ি কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলার জামালপুর গ্রামে।

এ দিকে বিকাল পৌনে ৩টার দিকে রাজশাহী থেকে আসা ডুবুরিদল নিখোঁজদের উদ্ধারে পাবনায় এসে পৌঁছান। তার আগে পাবনা ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও স্থানীয় এলাকাবাসী উদ্ধার কাজ চালিয়ে যান।

পাবনা ফায়ার সার্ভিস সূত্র ও ভেড়ামারা উপজেলার জামালপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ওই নৌকাডুবি থেকে সাঁতরে পাড়ে উঠে আসা একজন মনসুর আলী জানান, গো-খাদ্য উলুঘাস (কাশবন) কাটার জন্য ওই গ্রামের তিনিসহ ১৩ জন কৃষক পদ্মার চরে যাচ্ছিলেন।

তারা সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চর ঘোষপুর থেকে একটি নৌকাযোগে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছিলেন। মাঝপথে যাওয়ার পর নৌকাটি হঠাৎ ডুবে যায়। মাঝিসহ তারা ৯ জন সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও অপর ৪ জন তীরে উঠতে পারেননি। তাদের ভাগ্যে কি ঘটেছে তারা বলতে পারছেন না।

পাবনা ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. সাইফুজ্জামান প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানান, ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি লোক নৌকায় ওঠায় তা নদীর স্রোতে উল্টে যায়। ঘটনা জানার পর পরই ফায়ার সার্ভিস পাবনার টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

তিনি জানান, তারা স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। তবে বিকাল পৌনে ৩টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিখোঁজ কাউকে উদ্ধার করা যায়নি। নিখোঁজদের সলিল সমাধি ঘটতে পারে।

সহকারী পরিচালক সাইফুজ্জামান আরও জানান, পাবনায় উদ্ধার করার মতো কোনো ডুবুরি নেই। এ জন্য রাজশাহীতে ডুবুরিকে খবর দেয়ার পর বিকাল পৌনে ৩টা নাগাদ পাবনায় এসে পৌঁছেছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই তারা উদ্ধার অভিযান শুরু করবে।

তিনি আরও জানান, পদ্মায় প্রচণ্ড স্রোত। এ জন্য ধারণা করা হচ্ছে, নিখোঁজদের ঘটনাস্থলে পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। তাদেরকে ভাটিতে নিয়ে যেতে পারে।

এ দিকে নদী তীরে নিখোঁজদের স্বজন ও উৎসুক জনতা ভিড় করেছেন। নদী পাড় স্বজনদের আহাজারিতে ভারাক্রান্ত হয়ে উঠেছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত