বান্দরবানে সিক্স মার্ডার: ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
বান্দরবানে সিক্স মার্ডার: ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  বান্দরবান প্রতিনিধি  

০৮ জুলাই ২০২০, ২১:৪৮:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বান্দরবানে ব্রাশফায়ারে জনসংহতি সমিতির এমএন লারমা (সংস্কার) গ্রুপের শীর্ষ নেতাসহ ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় জেএসএসের ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

বুধবার রাতে সোয়া ৮টায় সদর থানায় হত্যা মামলাটি করেন সংগঠনের বান্দরবান জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক উবামং মারমা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার ওসি শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সিক্স মার্ডারের ঘটনায় সংগঠনের জেলা সেক্রেটারি উবামং মারমা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। আসামীদের গ্রেফতারের স্বার্থে এই মুহূর্তে আসামিদের নাম প্রকাশ করা যাবে না।

মামলার বাদী সেক্রেটারি উবামং মারমা বলেন, সংগঠনের নির্দেশনায় দলীয় নেতাদের হত্যার বিচার নিশ্চিত করতে বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছি। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জেএসএস সন্তু লারমা গ্রুপের ক্যাডাররা জড়িত। তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

খাগড়াছড়ি জেলার বাসিন্দার ৫ নেতার লাশ গ্রহণ করে খাগড়াছড়ি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আর নিহত জেলা সভাপতির লাশ তার স্ত্রী গ্রহণ করে নিয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

বান্দরবানে সিক্স মার্ডার: ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

 বান্দরবান প্রতিনিধি 
০৮ জুলাই ২০২০, ০৯:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বান্দরবানে ব্রাশফায়ারে জনসংহতি সমিতির এমএন লারমা (সংস্কার) গ্রুপের শীর্ষ নেতাসহ ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় জেএসএসের ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

বুধবার রাতে সোয়া ৮টায় সদর থানায় হত্যা মামলাটি করেন সংগঠনের বান্দরবান জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক উবামং মারমা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার ওসি শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সিক্স মার্ডারের ঘটনায় সংগঠনের জেলা সেক্রেটারি উবামং মারমা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। আসামীদের গ্রেফতারের স্বার্থে এই মুহূর্তে আসামিদের নাম প্রকাশ করা যাবে না।

মামলার বাদী সেক্রেটারি উবামং মারমা বলেন, সংগঠনের নির্দেশনায় দলীয় নেতাদের হত্যার বিচার নিশ্চিত করতে বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছি। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জেএসএস সন্তু লারমা গ্রুপের ক্যাডাররা জড়িত। তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

খাগড়াছড়ি জেলার বাসিন্দার ৫ নেতার লাশ গ্রহণ করে খাগড়াছড়ি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আর নিহত জেলা সভাপতির লাশ তার স্ত্রী গ্রহণ করে নিয়ে গেছে বলে জানান তিনি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন