ঢোলের বাজনার তালে তালে গুঁড়িয়ে দিল অসহায় বৃদ্ধের বাড়ি
jugantor
ঢোলের বাজনার তালে তালে গুঁড়িয়ে দিল অসহায় বৃদ্ধের বাড়ি

  ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

১১ জুলাই ২০২০, ১৯:৩৯:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ঢোলের বাজনার তালে তালে নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত একটি পরিবারের বসতঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ আতাউর রহমান ওরফে পরচা আতর।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় উপজেলার জামুরিয়া ইউনিয়নের গালা পশ্চিমপাড়া গ্রামে (নদীর পাড়ে) ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, নদীভাঙনের কবলে পড়ে আ. হামিদ (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ গালা গ্রামের একখণ্ড খাসজমিতে বসতঘর উঠিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু পার্শ্ববর্তী ছয়ানি বকশিয়া গ্রামের মৃত কালু সেকের ছেলে আতাউর রহমান ওরফে পরচা আতর ওই জমির মালিকানা দাবি করে।

এরই প্রেক্ষিতে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় দেড় শতাধিক ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে ধারালো অস্ত্র রামদা, শাবল ইত্যাদি দিয়ে অতর্কিতভাবে বাড়িতে হামলা করে। পরে বাড়ির লোকজনকে অস্ত্রের মুখে তাড়িয়ে দিয়ে ঢোলের বাজনার তালে তালে বসতঘর ভেঙে লুটপাট করে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মিলন মিয়া যুগান্তরকে বলেন, শুক্রবার দিন আমরা সবাই মসজিদে যাই। নামাজের সময় হঠাৎ ঢোলের বাদ্য বাজতে শোনা যায়। ওই বাড়ির আশপাশে হিন্দুবাড়ি থাকায় আমরা ভেবেছিলাম হয়তো কোনো অনুষ্ঠান হচ্ছে। পরে নামাজ শেষে জানতে পারি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে। এ দিকে বাড়িঘর ভাঙচুর করেই ক্ষান্ত হয়নি প্রতিপক্ষ আতর আলী। উপরন্তু ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে হুমকি দেয়ায় ভয়ে তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

ঢোলের বাজনার তালে তালে গুঁড়িয়ে দিল অসহায় বৃদ্ধের বাড়ি

 ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
১১ জুলাই ২০২০, ০৭:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ঢোলের বাজনার তালে তালে নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত একটি পরিবারের বসতঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ আতাউর রহমান ওরফে পরচা আতর।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় উপজেলার জামুরিয়া ইউনিয়নের গালা পশ্চিমপাড়া গ্রামে (নদীর পাড়ে) ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, নদীভাঙনের কবলে পড়ে আ. হামিদ (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ গালা গ্রামের একখণ্ড খাসজমিতে বসতঘর উঠিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু পার্শ্ববর্তী ছয়ানি বকশিয়া গ্রামের মৃত কালু সেকের ছেলে আতাউর রহমান ওরফে পরচা আতর ওই জমির মালিকানা দাবি করে।

এরই প্রেক্ষিতে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় দেড় শতাধিক ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে ধারালো অস্ত্র রামদা, শাবল ইত্যাদি দিয়ে অতর্কিতভাবে বাড়িতে হামলা করে। পরে বাড়ির লোকজনকে অস্ত্রের মুখে তাড়িয়ে দিয়ে ঢোলের বাজনার তালে তালে বসতঘর ভেঙে লুটপাট করে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মিলন মিয়া যুগান্তরকে বলেন, শুক্রবার দিন আমরা সবাই মসজিদে যাই। নামাজের সময় হঠাৎ ঢোলের বাদ্য বাজতে শোনা যায়। ওই বাড়ির আশপাশে হিন্দুবাড়ি থাকায় আমরা ভেবেছিলাম হয়তো কোনো অনুষ্ঠান হচ্ছে। পরে নামাজ শেষে জানতে পারি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে। এ দিকে বাড়িঘর ভাঙচুর করেই ক্ষান্ত হয়নি প্রতিপক্ষ আতর আলী। উপরন্তু ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে হুমকি দেয়ায় ভয়ে তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন