চাঁদপুরে হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লাট চালু
jugantor
চাঁদপুরে হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লাট চালু

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

১১ জুলাই ২০২০, ২২:২৮:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট চালু হয়েছে।

শনিবার সকালে এর উদ্বোধন করেন স্থানীয় এমপি ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ঢাকা থেকে তিনি জুম অ্যাপের মাধ্যমে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা দীপু মনির পিতা ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদের নামে প্রতিষ্ঠিত মেমোরিয়াল ট্রাস্টের অর্থায়নে এ অক্সিজেন প্লান্ট স্থাপিত হয়। এর ফলে তীব্র মাত্রায় অক্সিজেন সংকটে পড়া রোগীদের বিশেষ করে করোনা আক্রান্ত জটিল রোগীদের সেবা দেয়া সহজ হবে।

সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট চালু হওয়ায় হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মকর্তারা স্বস্তি প্রকাশ করে বলেন, করোনা আক্রান্ত জটিল রোগীদের চিকিৎসাসেবা এখন অনেকটা সহজ হবে। সেই সঙ্গে আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর হার কমে আসবে বলে চিকিৎসকরা আশা করছেন।

এ সময় চাঁদপুরে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তার বড় ভাই ডাক্তার জে আর ওয়াদুদ টিপু। ডা. দীপু মনি ও তার ভাইয়ের উদ্যোগে এবং অর্থায়নে অত্যন্ত দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টের আওতায় এসেছে চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিট।

চাঁদপুর থেকে ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ বিএমএ নেতৃবৃন্দ এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

স্পেক্ট্রা ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান অক্সিজেন প্লান্টের কাজ বাস্তবায়ন করে। এই অক্সিজেন প্লান্ট বর্তমানে আইসোলেশন ওয়ার্ডের ২৫টি বেড এবং করোনা রোগীদের জন্য সংরক্ষিত দুটি কেবিনের ৫টি বেডে সংযোগ দেয়া হয়েছে। এতে অক্সিজেন সংকটাপন্ন রোগীদের প্রয়োজন অনুসারে সাপ্লাই দেয়া সম্ভব হবে।

চাঁদপুরে হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লাট চালু

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
১১ জুলাই ২০২০, ১০:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে হাই ফ্লো সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট চালু হয়েছে। 

শনিবার সকালে এর উদ্বোধন করেন স্থানীয় এমপি ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ঢাকা থেকে তিনি জুম অ্যাপের মাধ্যমে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন। 

শিক্ষামন্ত্রী ডা দীপু মনির পিতা ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদের নামে প্রতিষ্ঠিত মেমোরিয়াল ট্রাস্টের অর্থায়নে এ অক্সিজেন প্লান্ট স্থাপিত হয়। এর ফলে তীব্র মাত্রায় অক্সিজেন সংকটে পড়া রোগীদের বিশেষ করে করোনা আক্রান্ত জটিল রোগীদের সেবা দেয়া সহজ হবে। 

সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট চালু হওয়ায় হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মকর্তারা স্বস্তি প্রকাশ করে বলেন, করোনা আক্রান্ত জটিল রোগীদের চিকিৎসাসেবা এখন অনেকটা সহজ হবে। সেই সঙ্গে আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর হার কমে আসবে বলে চিকিৎসকরা আশা করছেন। 

এ সময় চাঁদপুরে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তার বড় ভাই ডাক্তার জে আর ওয়াদুদ টিপু। ডা. দীপু মনি ও তার ভাইয়ের উদ্যোগে এবং অর্থায়নে অত্যন্ত দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টের আওতায় এসেছে চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিট। 

চাঁদপুর থেকে ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ বিএমএ নেতৃবৃন্দ এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। 

স্পেক্ট্রা ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান অক্সিজেন প্লান্টের কাজ বাস্তবায়ন করে। এই অক্সিজেন প্লান্ট বর্তমানে আইসোলেশন ওয়ার্ডের ২৫টি বেড এবং করোনা রোগীদের জন্য সংরক্ষিত দুটি কেবিনের ৫টি বেডে সংযোগ দেয়া হয়েছে। এতে অক্সিজেন সংকটাপন্ন রোগীদের প্রয়োজন অনুসারে সাপ্লাই দেয়া সম্ভব হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন