রাস্তার পাশে যুবকের বিবস্ত্র লাশ, পরিবারের দাবি হত্যা
jugantor
রাস্তার পাশে যুবকের বিবস্ত্র লাশ, পরিবারের দাবি হত্যা

  বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি  

১২ জুলাই ২০২০, ১৬:২৮:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় সড়কের পাশ থেকে এক যুবকের বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 


রোববার সকালে উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের আতাকাঠী গ্রামে নিহতের বাড়িসংলগ্ন সড়কের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।


নিহত যুবকের নাম মো. ইমরান হাওলাদার (২৫)। তিনি উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের আতাকাঠী গ্রামের মো. বাবুল হাওলাদারের ছেলে।


স্থানীয়রা ওই যুবকের বিবস্ত্র মরদেহ রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহতর বাবা মো. বাবুল হাওলাদারের অভিযোগ, তার ছেলেকে রাতে পরিকল্পিতভাবে পরনের গামছা গলায় পেঁচিয়ে হত্যা করা হয়েছে। 


বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মো. আবুল কালাম যুগান্তরকে বলেন, নিহত যুবক মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ছিল বলে ধারণা– গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করছে বলে মনে হয়। 


তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাবে না। এ ঘটনার সঙ্গে হত্যার কোনো সম্পর্ক আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।
 

রাস্তার পাশে যুবকের বিবস্ত্র লাশ, পরিবারের দাবি হত্যা

 বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি 
১২ জুলাই ২০২০, ০৪:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় সড়কের পাশ থেকে এক যুবকের বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।


রোববার সকালে উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের আতাকাঠী গ্রামে নিহতের বাড়িসংলগ্ন সড়কের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।


নিহত যুবকের নাম মো. ইমরান হাওলাদার (২৫)। তিনি উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের আতাকাঠী গ্রামের মো. বাবুল হাওলাদারের ছেলে।


স্থানীয়রা ওই যুবকের বিবস্ত্র মরদেহ রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহতর বাবা মো. বাবুল হাওলাদারের অভিযোগ, তার ছেলেকে রাতে পরিকল্পিতভাবে পরনের গামছা গলায় পেঁচিয়ে হত্যা করা হয়েছে।


বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মো. আবুল কালাম যুগান্তরকে বলেন, নিহত যুবক মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ছিল বলে ধারণা– গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করছে বলে মনে হয়।


তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাবে না। এ ঘটনার সঙ্গে হত্যার কোনো সম্পর্ক আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন