জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত
jugantor
জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

  জয়পুরহাট প্রতিনিধি  

১৫ জুলাই ২০২০, ১৭:১৭:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

জয়পুরহাটের সদরে দু’দল মাদক কারবারিদের মধ্যে ‘বন্দুকযদ্ধে’ স্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ব্যবসায়ী ও ৮ মামলার আসামি রুবেল হোসেন ডালিম (৩৭) নিহত হয়েছেন। 

বুধবার ভোর রাতে উপজেলার ভুটিয়াপাড়া-কদমতলী ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিদেশি পিস্তলসহ বেশকিছু মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

নিহত রুবেল হোসেন ডালিম জয়পুরহাটের সদর উপজেলার খাসপাহনন্দা গ্রামের নবিবুর রহমানের ছেলে। 

পুলিশ নিহত রুবেল হোসেন ডালিমকে মাদক কারবারি বলে অভিহিত করলেও পরিবারের অভিযোগ, ডালিম মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত ছিল না। স্থানীয় খাসপাহনন্দা মিশন বাজারে তার ইলেকট্রনিক্সের বড় ব্যবসা রয়েছে। সেখানে ‘রোজা ইলেকট্রনিক্স’ নামে তার মালিকানাধীন ইলেকট্রনিক্সের একটি দোকান রয়েছে। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সাদা পোশাকধারীরা বাজারের দোকান থেকে তাকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। বুধবার সকালে থানায় যোগাযোগ করে জানা যায়, ডালিমের লাশ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে নিহতের মামা দুলাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার রাতে মোবাইল ফোনে ডালিমের বাবা আমাকে জানান- ডালিমকে রাত ৮টার দিকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে গেছে। এরপর রাতে র‌্যাব, ডিবি ও থানায় যোগাযোগ করেও তার খোঁজ পাওয়া যায়নি। সকালে জানতে পারি গুলিতে ডালিম নিহত হয়েছে।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সালাম কবির জানান, মাদকের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দুদল মাদক কারবারির মধ্যে গোলাগুলির খবর পেয়ে পুলিশ ভুটিয়াপাড়া-কদমতলী ব্রিজের নিকট যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে গেলেও সেখানে রুবেল হোসেন ডালিম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিনসহ ৪ রাউন্ড গুলি ও ২০০ বোতল ফেনসিডিল এবং ১০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা, অপহরণ ও মাদকের মোট ৮টি মামলা আছে।
 

জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

 জয়পুরহাট প্রতিনিধি 
১৫ জুলাই ২০২০, ০৫:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জয়পুরহাটের সদরে দু’দল মাদক কারবারিদের মধ্যে ‘বন্দুকযদ্ধে’ স্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ব্যবসায়ী ও ৮ মামলার আসামি রুবেল হোসেন ডালিম (৩৭) নিহত হয়েছেন।

বুধবার ভোর রাতে উপজেলার ভুটিয়াপাড়া-কদমতলী ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিদেশি পিস্তলসহ বেশকিছু মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত রুবেল হোসেন ডালিম জয়পুরহাটের সদর উপজেলার খাসপাহনন্দা গ্রামের নবিবুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ নিহত রুবেল হোসেন ডালিমকে মাদক কারবারি বলে অভিহিত করলেও পরিবারের অভিযোগ, ডালিম মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত ছিল না। স্থানীয় খাসপাহনন্দা মিশন বাজারে তার ইলেকট্রনিক্সের বড় ব্যবসা রয়েছে। সেখানে ‘রোজা ইলেকট্রনিক্স’ নামে তার মালিকানাধীন ইলেকট্রনিক্সের একটি দোকান রয়েছে। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সাদা পোশাকধারীরা বাজারের দোকান থেকে তাকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। বুধবার সকালে থানায় যোগাযোগ করে জানা যায়, ডালিমের লাশ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে নিহতের মামা দুলাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার রাতে মোবাইল ফোনে ডালিমের বাবা আমাকে জানান- ডালিমকে রাত ৮টার দিকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে গেছে। এরপর রাতে র‌্যাব, ডিবি ও থানায় যোগাযোগ করেও তার খোঁজ পাওয়া যায়নি। সকালে জানতে পারি গুলিতে ডালিম নিহত হয়েছে।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সালাম কবির জানান, মাদকের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দুদল মাদক কারবারির মধ্যে গোলাগুলির খবর পেয়ে পুলিশ ভুটিয়াপাড়া-কদমতলী ব্রিজের নিকট যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে গেলেও সেখানে রুবেল হোসেন ডালিম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিনসহ ৪ রাউন্ড গুলি ও ২০০ বোতল ফেনসিডিল এবং ১০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা, অপহরণ ও মাদকের মোট ৮টি মামলা আছে।