গাইবান্ধায় করতোয়ার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত

  গাইবান্ধা প্রতিনিধি  ১৬ জুলাই ২০২০, ১৯:৫৪:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

গাইবান্ধায় ব্রহ্মপুত্র ও ঘাঘট নদীর পানি থমকে আছে। তবে করতোয়া নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ৯ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি স্থির থেকে তিস্তামুখঘাট পয়েন্টে বর্তমানে বিপৎসীমার ১১৮ সেমি উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

অপরদিকে ঘাঘট নদীর পানি গাইবান্ধা শহর পয়েন্টে সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ৯ ঘণ্টায় অপরিবর্তিত থেকে বর্তমানে বিপৎসীমার ৯৩ সেমি উপর দিয়ে বইছে। এ দিকে করতোয়া নদীর পানি গত ৯ ঘণ্টায় গোবিন্দগঞ্জের কাটাখালি পয়েন্টে ৩৫ সেমি বৃদ্ধি পেয়ে এখন বিপৎসীমার ১০ সেমি উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ফলে গোবিন্দগঞ্জ ও পলাশবাড়ি উপজেলার করতোয়া নদী তীরবর্তী এলাকায় ঘর-বাড়িতে পানি উঠতে শুরু করেছে। এ দিকে ব্রহ্মপুত্র ও ঘাঘট নদীর পানি স্থিতিশীল থাকায় বন্যাকবলিত এলাকায় জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। ওই সব এলাকায় বিশুদ্ধ পানি ও গো-খাদ্যের মারাত্মক সংকট দেখা দিয়েছে।

যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দিনমজুররা কর্মহীন হয়ে পড়ায় চরম দুর্দশার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বন্যাকবলিত সুন্দরগঞ্জ, সাঘাটা, ফুলছড়ি ও সদর উপজেলার ২৬টি ইউনিয়নে ১ লাখ ৩০ হাজার মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে বিতরণের জন্য ২১০ মে. টন চাল ও সাড়ে ১৯ লাখ টাকা খয়রাতি সাহায্য হিসেবে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া গো-খাদ্য ও শিশু খাদ্যের জন্য পৃথকভাবে ৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ সব বরাদ্দকৃত চাল ও নগদ অর্থ বিতরণের কাজ চলছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত