দস্যুদের অর্ধলাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেল ১৬ জেলে

  মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি ১৬ জুলাই ২০২০, ২১:৩৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

ভোলার মনপুরার মেঘনায় ইলিশ শিকারের সময় জলদস্যু বাহিনী এক জেলে ট্রলারসহ ১৬ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় হাতিয়ার গহীন বনে। পরে দস্যুবাহিনী মুক্তিপণ ৩ লাখ টাকার জন্য অপহরণকৃত জেলেদের নির্যাতনসহ ট্রলার মালিক মতিন পাটোয়ারীকে মুঠোফোনে হুমকি দেয়।

পরে অর্ধলাখ টাকায় রফাদফা হলে জেলেদের ছেড়ে দেয় দস্যু বাহিনী। এ দিকে দস্যুদের নির্যাতনে ট্রলারের মাঝি ও এক জেলে গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।
বৃহস্পতিবার ভোরে বিকাশের মাধ্যমে দস্যুদের অর্ধলাখ টাকা দিলে ছেড়ে দেয়া হয় অপহরণকৃত জেলেদের। এর আগে মঙ্গলবার ভোর রাত ৪টায় মেঘনার মোক্তারদোন এলাকায় ইলিশ শিকারের সময় জলদস্যুরা হামলা চালিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায় ট্রলারসহ ১৬ জেলেকে।

মুক্তিপণে উদ্ধার হওয়া জেলেরা হলেন- সেলিম, সোহাগ, নাজিম, মনজু, মাকছুদ, শাহাদাত, আজগর, ইমান হোসেন, শাহেদ, জুয়েল, জামাল, শাহে আলম, জাকির, ছোট জাকির, নুর আলম, রাকিব। এদের মধ্যে নির্যাতনে ট্রলারের মাঝি সেলিম ও জেলে জাকির স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি। অপর জেলেরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের সবার বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

মুক্তিপণে উদ্ধার হওয়া হাসপাতালে ভর্তি সেলিম মাঝি ও জেলে জাকির হোসেন যুগান্তরকে জানান, মঙ্গলবার ভোররাতে মেঘনার মোক্তারদোন এলাকায় মাছ শিকারের গেলে জলদস্যুরা হামলা চালায়। পরে সবাইকে বেধড়ক মারধর করে চোখ বন্ধ বেঁধে ট্রলারসহ নিয়ে যায়। পরে দস্যুরা আমাদের মোবাইল ফোন দিয়ে ট্রলার মালিকের কাছে ফোন দেয় মুক্তিপণের জন্য আর না হলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ ছাড়াও গত দুইদিন আমাদের দুইজনকে নির্যাতন করে। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে মুক্তিপণের টাকা দেয়া হলে দস্যুরা ট্রলারসহ ছেড়ে দেয়।

ট্রলার মালিক মতিন পাটোয়ারী যুগান্তরকে বলেন, জেলেদের অপহরণের পর দস্যুরা অপহৃত সেলিম মাঝির মুঠোফোন দিয়ে ফোন করে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে অর্ধলাখ টাকা রফাদফা হলে বিকাশে (০১৮৬১১১৬২০৯, ০১৩০০৪৮২৬০৭ নম্বরে) টাকা পাঠালে অপহৃত ১৬ জেলেকে ছেড়ে দেয় দস্যুবাহিনী। দস্যুরা ট্রলারে থাকা জাল ও সোলার নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে মনপুরা থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানান, অপহরণের বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। তার পরও আমরা বিষয়টি খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত