‘স্বাধীন বাংলাদেশ পুনর্গঠনে নুরুল ইসলামের অবদান চিরভাস্মর হয়ে থাকবে’
jugantor
‘স্বাধীন বাংলাদেশ পুনর্গঠনে নুরুল ইসলামের অবদান চিরভাস্মর হয়ে থাকবে’

  পাবনা প্রতিনিধি  

১৭ জুলাই ২০২০, ২১:৫১:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

‘যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম দেশ মাতৃকার টানে জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেই তিনি ক্ষান্ত হননি, বরং যুদ্ধ-বিধ্বস্ত বাংলাদেশ পূর্ণগঠনে অর্থনৈতিক ভিত মজবুত করতে তিনি অসামান্য অবদান রেখেছেন। তিনি চলে গেলেও তার এই অবদান চিরভাস্মর, চির অম্লান হয়ে থাকবে।’

দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম স্মরণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

মরহুম নুরুল ইসলামের সংক্ষিপ্ত জীবনী নিয়ে আলোচনার পর তার আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল এবং বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুম্মা পাবনার ঐতিহাসিক চাঁপা বিবি ওয়াকফ এস্টেট জামে মসজিদে যুগান্তর স্বজন সমাবেশ, পাবনার উদ্যোগে এই দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা ছিবগাতুল্লাহ। দোয়া মাহফিলে অংশ নেন, চাঁপা বিবি ওয়াকফ এস্টেট জামে মসজিদের মোতোয়ালি ও উত্তরবঙ্গ ট্রাক মালিক গ্রুপের সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন খান মোহন, প্রস্তাবিত মাহাতাব বিশ্বাস ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজির (মাস্ট) চেয়ারম্যান মাহাতাব উদ্দিন বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল হান্নান, চাঁপা বিবি ওয়াকফ মসজিদের ইমাম আবদুল হান্নান, হাফেজ ইমরান হোসেন, পাবনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আঁখিনুর ইসলাম রেমন, মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক-কলামিস্ট আবদুল হামিদ খান, বেসরকারি সংগঠন ওসাকার পরিচালক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মাজহারুল ইসলাম, দৈনিক সিনসার সম্পাদক ও ইছামতি নদী উদ্ধার আন্দোলনের সভাপতি অধ্যাপক এসএম মাহবুব আলম, যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাংগঠনিক সম্পাদক ভাস্কর চৌধুরী, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ও চাঁপা বিবি মসজিদ কমিটির নির্বাহী সদস্য আবুল হোসেন,  বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হারুনুর রশিদ লাইজু, আশরাফুল ইসলাম খান মিলন, যমুনা টেলিভিশনের পাবনা প্রতিনিধি সনম রহমান, সাংবাদিক এসএম পারভেজ প্রমুখ।

দোয়া মাহফিলের আগে স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুগান্তরের পাবনা প্রতিনিধি, পাবনা সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি ও স্বজন উপদেষ্টা আখতারুজ্জামান আখতার।এ সময় অন্য বক্তারা মরহুম নুরুল ইসলামের জীবনী ও দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে তার অবদানের কথা তুলে ধরেন।

মহান আল্লাহর দরবারে মরহুমের আত্মার শান্তির জন্য উপস্থিত সবাই মোনাজাতে অংশ নেন। উত্তরবঙ্গের অন্যতম বৃহত্তম এই জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে দলমত নির্বিশেষে বিপুল সংখ্যক মুসল্লি অংশ নেন।

এদিকে নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে পাবনার রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বরা এখনো শোক প্রকাশ অব্যাহত রেখেছেন। আরও শোক জানিয়েছেন পাবনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. মকবুল হোসেন, পাবনা ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক মুক্তিযোদ্ধা বেবী ইসলাম, সাবেক এমপি ও সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন সন্টু, সাবেক এমপি লেখক কবি পাঞ্জাব বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চাটমোহর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল হামিদ মাস্টার, বেড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল কাদের, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা খ ম হাসান কবির আরিফ, পাবনা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারোফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সোহেল হাসান শাহিন, সুজানগর পৌর মেয়র ও সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওহাব, সাঁথিয়া পৌর মেয়র মিরাজুল ইসলাম, ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল প্রমুখ।

‘স্বাধীন বাংলাদেশ পুনর্গঠনে নুরুল ইসলামের অবদান চিরভাস্মর হয়ে থাকবে’

 পাবনা প্রতিনিধি 
১৭ জুলাই ২০২০, ০৯:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

‘যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম দেশ মাতৃকার টানে জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেই তিনি ক্ষান্ত হননি, বরং যুদ্ধ-বিধ্বস্ত বাংলাদেশ পূর্ণগঠনে অর্থনৈতিক ভিত মজবুত করতে তিনি অসামান্য অবদান রেখেছেন। তিনি চলে গেলেও তার এই অবদান চিরভাস্মর, চির অম্লান হয়ে থাকবে।’

দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম স্মরণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

মরহুম নুরুল ইসলামের সংক্ষিপ্ত জীবনী নিয়ে আলোচনার পর তার আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল এবং বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুম্মা পাবনার ঐতিহাসিক চাঁপা বিবি ওয়াকফ এস্টেট জামে মসজিদে যুগান্তর স্বজন সমাবেশ, পাবনার উদ্যোগে এই দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা ছিবগাতুল্লাহ। দোয়া মাহফিলে অংশ নেন, চাঁপা বিবি ওয়াকফ এস্টেট জামে মসজিদের মোতোয়ালি ও উত্তরবঙ্গ ট্রাক মালিক গ্রুপের সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন খান মোহন, প্রস্তাবিত মাহাতাব বিশ্বাস ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজির (মাস্ট) চেয়ারম্যান মাহাতাব উদ্দিন বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল হান্নান, চাঁপা বিবি ওয়াকফ মসজিদের ইমাম আবদুল হান্নান, হাফেজ ইমরান হোসেন, পাবনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আঁখিনুর ইসলাম রেমন, মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক-কলামিস্ট আবদুল হামিদ খান, বেসরকারি সংগঠন ওসাকার পরিচালক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মাজহারুল ইসলাম, দৈনিক সিনসার সম্পাদক ও ইছামতি নদী উদ্ধার আন্দোলনের সভাপতি অধ্যাপক এসএম মাহবুব আলম, যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাংগঠনিক সম্পাদক ভাস্কর চৌধুরী, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ও চাঁপা বিবি মসজিদ কমিটির নির্বাহী সদস্য আবুল হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হারুনুর রশিদ লাইজু, আশরাফুল ইসলাম খান মিলন, যমুনা টেলিভিশনের পাবনা প্রতিনিধি সনম রহমান, সাংবাদিক এসএম পারভেজ প্রমুখ।

দোয়া মাহফিলের আগে স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুগান্তরের পাবনা প্রতিনিধি, পাবনা সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি ও স্বজন উপদেষ্টা আখতারুজ্জামান আখতার।এ সময় অন্য বক্তারা মরহুম নুরুল ইসলামের জীবনী ও দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে তার অবদানের কথা তুলে ধরেন।

মহান আল্লাহর দরবারে মরহুমের আত্মার শান্তির জন্য উপস্থিত সবাই মোনাজাতে অংশ নেন। উত্তরবঙ্গের অন্যতম বৃহত্তম এই জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে দলমত নির্বিশেষে বিপুল সংখ্যক মুসল্লি অংশ নেন।

এদিকে নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে পাবনার রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বরা এখনো শোক প্রকাশ অব্যাহত রেখেছেন। আরও শোক জানিয়েছেন পাবনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. মকবুল হোসেন, পাবনা ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক মুক্তিযোদ্ধা বেবী ইসলাম, সাবেক এমপি ও সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন সন্টু, সাবেক এমপি লেখক কবি পাঞ্জাব বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চাটমোহর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল হামিদ মাস্টার, বেড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল কাদের, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা খ ম হাসান কবির আরিফ, পাবনা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারোফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সোহেল হাসান শাহিন, সুজানগর পৌর মেয়র ও সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওহাব, সাঁথিয়া পৌর মেয়র মিরাজুল ইসলাম, ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল প্রমুখ।

 

ঘটনাপ্রবাহ : যমুনা গ্রুপ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম